কেনিয়ায় করোনার চেয়ে বেশি লোক মারা গেছে কার্ফিউ চলাকালীন পুলিশের গুলিতে

কেনিয়ায় করোনা মহামারিতে যে পরিমাণ লোক মারা গেছে তার চেয়ে বেশি মারা গেছে কার্ফিউ চলাকালীন পুলিশের গুলিতে। খবর আনাদোলু এজেন্সি’র।

দেশটিতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে জারি করা কার্ফিউ চলাকালীন এ পর্যন্ত ১২ জনকে গুলি করে হত্যা করেছে কেনিয়ার পুলিশ। যেখানে ওই দেশে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ১১ জন।

মানবাধিকার কর্মী উইলফ্রেড ওলাল গণমাধ্যমকে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওলাল বলেন, ‘পুলিশের গুলিতে প্রায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ১২ জনের ব্যাপারে আমরা পুরোপুরি নিশ্চিত হয়েছি আর বাকিদের ব্যাপারে অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছি। তাছাড়া জণগনের প্রতি পুলিশের বর্বরতা ও মারধরের এতো বেশি ঘটনা ঘটছে যা হিসেবে করা সম্ভব নয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘জনগণ কভিড -১৯ এর চেয়ে পুলিশকে বেশি ভয় করে।

মহামারী শুরুর প্রেক্ষিতে আদালত স্থগিত করার নির্দেশনা পুলিশের অর্থোপার্জন প্রকল্পে রূপান্তরিত হয়েছে। আদালতকে চ্যালেঞ্জ জানাতে না পারায় পুলিশ প্রতিনিয়ত লোকদের গ্রেপ্তার করছে এবং তাদের কাছ থেকে মোটা অংকের জরিমানা আদায় করছে।’

নিরাপত্তা বিশ্লেষক জর্জ মুসামালি বলেন, ‘কেনিয়ার এটি একটি নতুন পরিস্থিতি। আমরা এখন যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছি তা হল পুলিশের নির্মম ব্যবহার। আমাদের বেশিরভাগ লোক দাবি করেছে যে কারফিউ কার্যকর করার প্রক্রিয়ায় পুলিশ তাদের আত্মীয়দের হত্যা করছে এবং অনেক লোক আহত হয়েছে।’

Previous post নোয়াখালীতে নারী চিকিৎসককে বাড়ি থেকে বের করে দিলেন মালিক
Next post করোনার মধ্যেই ফিলিস্তিনি বন্দীদের ওপর ইসরাইলি নৃশংসতা!