খাবার না পেয়ে বিক্ষোভ

হতদরিদ্র মানুষ খাবার না পেয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হান্নান সরকারের অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। ন্যাশনাল আইডি কার্ড নিলেও এখনও কোন খাদ্য সামগ্রী পান নাই বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ঘেরাওয়ে অংশ নেয়া স্থানীয় কর্মহীন ও অস্বচ্ছল ওয়ার্ডবাসী।

শনিবার দুপুর ১২টায় বন্দরের শাহী মসজিদ এলাকায় অসহায় ও কর্মহীন প্রায় ৩০০ পরিবার খাদ্য সামগ্রীর কোন সহায়তা না পেয়ে নাসিক ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কার্যালয় ঘেরাও। এসময় তারা নানা স্লোগান দেয়।

পরে খবর পেয়ে বন্দর পুলিশ ফাঁড়ীর ইন্সপেক্টর আমিনুল ইসলাম ও এসআই গোপাল ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত বিক্ষুব্দ মানুষকে শান্ত করে নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করার জন্য অনুরোধ জানান এবং বিষয়টি কাউন্সিলরসহ উধ্বর্তন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলবেন বলে আশ্বস্ত করেন।

বিক্ষোভকারীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নাসিক ২১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আমরা। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে আমাদের কাজ-কর্ম একেবারেই বন্ধ হয়ে গেছে। আমরা ঘর থেকে বেরোতে পারি না। সরকারের দেয়া লক ডাউনে আমরা কঠিন বিপদে আছি। আমরা পেটের দায়ে বাইরে বেরোইলে পুলিশ পিটায়। কাজ না করলে খামু কি।

কাউন্সিলর হান্নান সরকার আমাদের আইডি কার্ড নিয়ে গেছে খাবার ঘরে পৌছে দেবে বলে অথচ আজ ১০দিন হয়ে গেলে কোন খাবার এখনও পাই নাই। সে তার নিজস্ব লোকদের মাধ্যমে গভীর রাতে ভ্যানগাড়ী দিয়া তার নির্দিষ্ট ভোটারদের বাড়িতে বাড়িতে পৌছে দিচ্ছে। অথচ আমাদের চিৎকার সে শুনতে পায়না। এজন্য আমরা কাউন্সিলর হান্নান সরকারের বিরেুদ্ধ বিক্ষোভে নামছি।

তারা আরোও বলেন, খাবার না পাইলে এই লক ডাউন দিয়ে আমরা কি করমু। কপালে যদি ভাইরাসে মরন থাকে মরমু কিন্তু না খাইয়া মরতে পারুম না। আমরা এমন লক ডাউন মানি না।