গ্যাসের প্রি-পেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স বাড়ানো হয়েছে

গ্যাসের প্রি-পেইড মিটারের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স ২০০ থেকে বাড়িয়ে দুই হাজার টাকা করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে শহরের সব কিছু বন্ধ থাকায় কোনও গ্রাহক যদি মিটার রিচার্জ করতে না পারেন, তারা দুই হাজার টাকা পর্যন্ত ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স ব্যবহার করতে পারবেন।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিতাস গ্যাস কোম্পানি এ তথ্য জানিয়েছে।

এছাড়া চট্টগ্রামে গ্যাস বিতরণকারী কোম্পানি কর্ণফুলি গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানিও গ্রাহকদের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স বাড়িয়ে এক হাজার টাকা করেছে।

তিতাস জানায়, গ্রাহকদের সুবিধার জন্য তারা জরুরি যোগাযোগের জন্য বেশ কিছু মোবাইল নম্বরের তালিকা করেছে। যেমন-কেউ কার্ড হারিয়ে ফেললে তিতাসের প্রধান কার্যালয়ের আবুল কালাম আজাদের সঙ্গে ০১৭৩৯৯৮৯৮৬১ এবং ০১৬২০০১০৯৬৯ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারবেন। এছাড়া গ্রাহকরা যেকোনও প্রয়োজনে তিতাসের কল সেন্টার ১৬৪৯৬ নম্বরে ফোন দিতে পারবেন। গ্রাহক পর্যায়ে জরুরি সেবা পৌঁছাতে পাঁচটি টিম প্রস্তুত রয়েঝে বলেও জানায় তিতাস কর্তৃপক্ষ।

এরপরেও থাকছে তিনটি হটলাইন মোবাইল নম্বর। বিশেষ ক্ষেত্রে যোগাযোগের জন্যও দেওয়া হয়েছে আরও তিন কর্মকর্তার নম্বর। তারা হচ্ছেন, প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মো. ফয়জার রহমান (০১৯৩৯৯২১০৪৬), ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. সাজ্জাদ হোসেন (০১৯৩৯৯২১০৭২) এবং উপ-ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মীর মোবারক হোসেন (০১৯৫২২৭৭৩৭৯) ।

রিচার্জ পয়েন্টের ফোন নম্বরগুলোও তালিকা করে দিয়েছে তিতাস। তিতাসের ওয়েবসাইটে গেলে এসব নম্বর পাওয়া যাবে।