ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


তুরস্কে টানা ৪০ দিন ফজরের নামাজ জামায়াতের সাথে আদায় করার পুরুস্কার হিসেবে বাইসাইকেল বিতরণ করার ঘটনা বেশ আলোচিত হয়েছিল বিশ্ব মিডিয়ায়। এছাড়াও ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে অবস্থিত ‘মসজিদ কামারুল ইসলাম’ কর্তৃপক্ষ আয়োজন করেছিল এমন একটি প্রতিজগিতা। সেখানে টানা ২৮ দিন ফজরের জামাতে অংশ নিলে শিশু-কিশো‍রদের মাউন্টেন বাইক দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়েছিল।

তবে এবারের ঘটনা তুরস্ক কিংবা ইংল্যান্ডে নয়, এবারের ঘটনা বাংলাদেশে! ‘চল মসজিদে জামায়াতে নামাজ পড়তে’, এই স্লোগানকে সামনে রেখে চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলায় টানা ৪০দিন জামায়াতে নামাজ পড়ায় ১৭ বালককে দেয়া হয়েছে বাইসাইকেল পুরুস্কার। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী স্থানীয় খান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বাইসাইকেল বিতরণ করেন সংগঠনের অন্যতম নেতা মতলবের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী সুমন খান।

জানা যায়, উপজেলার বাগানবাড়ী ইউনিয়নের গালিম খাঁ গ্রামে ঘোষণা করা হয়েছিল যে, যদি কোনো বালক টানা ৪০ দিন জামায়াতে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করতে পারে, তবে তাদেরকে একটি করে বাইসাইকেল পুরস্কার দেয়া হবে।

এই ঘোষণার পর থেকেই মসজিদে জামায়াতের সাথে অনেক বালক নামাজ পড়তে শুরু করে। প্রথমে অনেক বালক মসজিদে জামায়াতে নামাজ পড়া শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত ১৭ জন বালক টানা ৪০ দিন জামায়াতে নামাজ পড়ে শর্তপূরণ করতে সক্ষম হয়।

এ ধরনের উদ্যোগ খুবই কম দেখা যায়। টানা ৪০ দিন মসজিদে জামায়াতে নামাজ পড়া স্থানীয় এই ১৭ বালককে মঙ্গলবার আয়োজক সুমন খান নিজের বাড়ি সংলগ্ন জামে মসজিদের সামনে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বালকদের হাতে পুরস্কারের সাইকেলগুলো তুলে দেন।

অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিল মতলব এগ্রো ফিশারজ।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে আয়োজক সুমন খান জানান, আমি এই উদ্যোগটি নিয়েছি মূলত নতুন প্রজন্ম যাতে বাজে অভ্যাসে যাতে না গিয়ে নামাজমুখী হয় সে জন্য। আমি আশাকরি আমার এই উদ্যোগ দেখে অন্য ভাইরাও উৎসাহিত হবে। এবং তাদের উদ্যোগেও আরো অনেক বালক নামাজমুখী হবে।