চাঁপাইনবানগঞ্জে যুবকের দুই হাতের কবজি কাটার ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ গ্রেপ্তার ৪

September 20, 2019

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


চাঁপাইনবানগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় রুবেল হোসেন (২৮) নামে এক যুবকের দুই হাতের কবজি কেটে নেওয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় উজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত বুধবার গভীর রাতে উপজেলার উজিরপুর ইউনিয়নে রুবেল হোসেনের দুই হাতের কবজি কেটে দেয় দুর্বৃত্তরা। রুবেল শিবগঞ্জের রানিহাটি বাজার এলাকার বাসিন্দা।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দিনে ও রাতে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- শিবগঞ্জ উপজেলার উজিরপুরের ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিন আহমেদ (৪০), তারিক আহমেদ (৩৫), উত্তর উজিরপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) ও একই গ্রামের আলাউদ্দিন (৩৪)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুল ইসলাম। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের আমনুরা এলাকা থেকে ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজ আহমেদ ও তারিক আহমেদকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। এর আগে বিকেলে গ্রেপ্তার করা হয় জাহাঙ্গীর ও আলাউদ্দিনকে।

তিনি আরও জানান, রুবেলের মা রুলি বেগম বাদী হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজ আহমেদসহ ২২ জনকে আসামি করে শিবগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছেন। অন্য অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রসঙ্গত, আহত অবস্থায় রুবেল এখন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। রুবেলের পরিবারের অভিযোগ, নদীর একটি ঘাটকে কেন্দ্র করে শিবগঞ্জের উজিরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফয়েজ উদ্দিন আহমেদ ও তার ক্যাডার বাহিনী রুবেলের কবজি কেটে নিয়েছে।