চিকিৎসার পরিবর্তে শ্রমিকদের ওপর কীটনাশক ছড়াল যোগীর সরকার

নিত্যনতুন কাণ্ডকারখানা করে শিরোনামে থাকাটা অভ্যাসে পরিণত করে ফেলেছেন ভারতের উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এবার নিজের রাজ্যের যে শ্রমিকরা লকডাউনের পর অন্য রাজ্য থেকে উত্তর প্রদেশ ফিরলেন, তাদের উপর কীটনাশক ছড়ালেন যোগীর প্রশাসনের কর্মীরা। সেই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হতেই চারিদিকে যোগীর নামে ধিক্কার পড়ে গিয়েছে।

সোমবার (৩০ মার্চ) সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, পরিযায়ী শ্রমিকদের আশ্রয় এবং খাবার জোগানের দুরবস্থার শুনানি মঙ্গলবার হবে।

আর এদিনই যোগীর রাজ্যের প্রশাসনিক অফিসারদের কেরামতির একটা ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ভিডিও ক্লিপে দেখা যাচ্ছে, একদল পরিযায়ী শ্রমিকদের চোখ বুঁজে বসতে বলছেন নিরাপদ পোশাকে সজ্জিত সরকারি কর্মীরা। তারা বসলে, তাদের উপর ছেটানো হচ্ছে কীটনাশক। কারণ তারা সবাই অন্য রাজ্য থেকে এসেছেন। ফলে শরীরে থাকতে পারে করোনাভাইরাস। কীটনাশক ছেটানোর সময় অনেক শিশুকে আর্তনাদ করতেও শোনা যাচ্ছে ক্লিপে। পুরো ঘটনা সামনে থেকে দাঁড়িয়ে চুপচাপ দেখে যাচ্ছেন একদল পুলিশকর্মী।

নিজেদের ঘরে ফেরার পর কোয়ারানটাইন ক্যাম্পে নিয়ে চিকিৎসা করানোর পরিবর্তে শ্রমিকদের শরীরে এভাবে কীটনাশক ছেটানোর ঘটনায় যোগী সরকারের কঠোর সমালোচনা করেছে অনকেই। সোশ্যাল মিডিয়াতেও নিন্দার ঝড় উঠেছে। তারপর সাফাই দিতে গিয়ে ওই সরকারি কর্মীরা বলেছেন, কোনও কীটনাশক দেওয়া হয়নি। শুখু ক্লোরিন মিশ্রিত জল ছেটানো হয়েছিল শ্রমিকদের উপর। তাদের সাফাই, ‘‌আমরা মোটেও অমানবিক কাজ করিনি।

সূত্র: আজকাল

Comments are closed.