চীনের কাছে সেনা হারানোর পর ইসরাইল থেকে ড্রোন, মিসাইল কিনছে ভারত

পূর্ব লাদাখে চীনের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়ার পর ভারত তার নজরদারি সামর্থ্য ও ফায়ারপাওয়ার বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে। এরই অংশ হিসেবে জরুরিভিত্তিতে ইহুদীবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের কাছ থেকে আরো হেরন ড্রোন ও স্পাইক অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল কেনা হচ্ছে। হেরন ড্রোনগুলো এরই মধ্যে বিমান, নৌ ও সেনাবাহিনী ব্যবহার করছে। লাদাখ সেক্টরে সেনাবাহিনীর সারভেইল্যান্স ও টার্গেট একুইজিশন ব্যাটারি ও বিমান বাহিনী এগুলোকে ব্যাপকভাবে কাজে লাগাচ্ছে।

ভারত সরকারের একটি সূত্র জানায়, ভারতীয় বিমান বাহিনীর চাহিদা মেটাতে ড্রোন বহর বাড়ানোর জন্য আরো হেরন কেনা হচ্ছে। সূত্রটি অবশ্য কোন সংখ্যা উল্লেখ করেনি।

বেশ কয়েক বছর ধরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর তিনটি বিভাগই হেরন ড্রোন ব্যবহার করছে। এগুলো টানা দুই দিন উড়তে পারে এবং ১০ কিলোমিটার উপর থেকে টার্গেট সম্পর্কে তথ্য পাঠাতে পারে।

সেনাবাহিনী ড্রোনের সশস্ত্র সংস্করণ কিনতেও আগ্রহী। পাশাপাশি বর্তমান ড্রোন বহরকে সশস্ত্র রূপ দিতে চাচ্ছে। এ লক্ষ্যে বিমান বাহিনী উচ্চাভিলাষী ‘প্রজেক্ট চিতা’ গ্রহণ করেছে।

এদিকে ভারতীয় সেনাবাহিনী ইহুদীবাদী ইসরাইলের কাছ থেকে আরো বেশি করে স্পাইক অ্যান্টি-ট্যাংক গাইডেড মিসাইল কেনার পরিকল্পনা করেছে।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর