ছাত্রী উত্ত্যক্তকারী ৩ কিশোরকে দাওয়াতে তাবলীগে পাঠালো আদালত

ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২০ । নিজস্ব প্রতিনিধি



টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে উত্ত্যক্তের অভিযোগে আটককৃত তিন বখাটে কিশোরকে ভালো হওয়ার সুযোগ দিয়ে ৬ দিনের দাওয়াতে তাবলীগে পাঠিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মঈনুল হক উত্তমপন্থার এ আদেশ দেন।

অভিযুক্তরা হলেন মির্জাপুর পৌরসভার পোষ্টকামুরী পূর্বপাড়া (সওদাগরপাড়া) গ্রামের শুভ মিয়া, আশিক ও জিহাদ।

জানা গেছে, বখাটে ওই তিন কিশোর এসএসসি পরীক্ষার্থী এক ছাত্রীকে স্কুলে যাওয়া-আসার পথে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করত। ওই শিক্ষার্থী মির্জাপুর সরকারি কলেজ পরীক্ষাকেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। বখাটেরা তাকে জোরপূর্বক তুলে নেয়ারও হুমকি দেয়। গত সোমবার এসএসসি পরীক্ষাকেন্দ্রে যাওয়ার সময় বখাটেরা মেয়েটির গতিরোধ করে। এ সময় সে ভয়ে চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়।

পরে এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা মির্জাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। মঙ্গলবার দুপুরে পরীক্ষা কেন্দ্রের সামনে বখাটেরা মেয়েটিকে পুনরায় উত্ত্যক্ত করতে আসলে ওত পেতে থাকা মির্জাপুর থানায় কর্মরত সাদা পোশাকের পুলিশ তাদের আটক করে।

বুধবার দুপুরে আটককৃত ওই তিন কিশোরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মঈনুল হকের কার্যালয়ে হাজির করা হলে বিচারক তাদেরকে সাজা না দিয়ে ভালো হওয়ার সুযোগ দিয়ে ৬ দিনের দাওয়াতে তাবলীগে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) মঈনুল হক বলেন, কিশোর তিনজনই শিক্ষার্থী। তাই তাদের শিক্ষাজীবন সুরক্ষার জন্য সাজা না দিয়ে তাবলিগে পাঠানো হয়েছে।