ইফা প্রকল্প থেকে দারুল আরকাম মাদরাসা বাদ দেওয়া গভীর ষড়যন্ত্র: জাতীয় শিক্ষক ফোরাম

বাংলাদেশ সরকার দারুল আরকাম মাদরাসা নামে একটি প্রসংশনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার পর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রকল্প থেকে তা বাদ দেওয়া গভীর চক্রান্ত বলে অভিহিত করেছেন জাতীয় শিক্ষক ফোরাম।

মঙ্গলবার (১৯ মে) এক যৌথ বিবৃতিতে জাতীয় শিক্ষক ফোরামের এর কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান এবং সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা এবিএম জাকারিয়া এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, বিশ্ব যখন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ত্রাসে জর্জরিত। ঠিক তখন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্প থেকে দারুল আরকাম ইবতেদায়ি মাদরাসা বাদ দিয়ে সারাদেশে দুই লক্ষাধিক শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন অনিশ্চিয়তার মুখে ঠেলে দেওয়া অশুভ ইঙ্গিত বলেই মনে হচ্ছে।

নেতৃদ্বয় আরও বলেন, দারুল আরকাম ইবতেদায়ি মাদরাসার আলেম শিক্ষক-শিক্ষিকারা দীর্ঘ ৫ মাস যাবত বেতন-ভাতা পাচ্ছেন না। লকডাউনের মাঝে ১ হাজার ১০টি দারুল আরকাম ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষক শিক্ষিকারা পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন। এরই মাঝে প্রকল্প বাদ দেওয়ায় তাদের জীবনের নেমে এসেছে অনিশ্চয়তার মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। তাই অবিলম্বে দারুল আরকাম মাদরাসাকে ইফার প্রকল্পে পুনরায় নিয়ে শিক্ষকদের বকেয়া বেতন বোনাস ঈদের আগেই পরিশোধ করতে হবে। অন্যথায় ঈদের পর জাতীয় শিক্ষক ফোরাম আন্দোলনের ডাক দিতে বাধ্য হবে।

Previous post দেওবন্দের সদরুল মুদাররিস মুফতি সাঈদ আহমদ পালনপুরীর ইন্তেকালে ইসলামী আন্দোলনের শোক
Next post দেওবন্দের শাইখুল হাদীস মুফতি সাঈদ আহমদ পালনপুরীর ইন্তিকালে আল-হাইআতুল উলয়ার শোক