দরিদ্রদের চাল বেশি দামে বিক্রি, ২ আ.লীগ নেতা আটক

নোয়াখালী সেনবাগ উপজেলার ৯নং নবীপুর ইউনিয়নে পরস্পর যোগসাজশে গরিবের জন্য সরকারের বিশেষ কর্মসূচির আওতায় দেওয়া ১০ টাকার চাল নিয়ে জালিয়াতি করায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুই নেতাকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন- ওএমএস চাল বিতরণ কর্মসূচির ডিলার ও ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান সাজু এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ঈসমাইল হোসেন খান।

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) তাদেরকে আটক করা হয়েছে বলে সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল বাতেন মৃধা গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, চাল চুরির দায়ে দুজনকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে একজন ডিলার অন্যজন তার সহযোগী। পরে ব্রিফিং করে বিস্তারিত জানানো হবে।

এর আগে বিকেল ৫টা থেকে চাল চুরির অভিযোগে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাইফুল ইসলাম মজুমদার।

অভিযানের বিষয়ে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, গরিবের জন্য দেওয়া চাল চুরি করা হয়েছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা সেখানে অভিযান চালাই। অভিযানে চুরির সত্যতা মিলেছে। ওই ডিলার (শাহজাহান) এক সহযোগীর (ঈসমাইল হোসেন খান) সহায়তায় এ জালিয়াতি করেছে। গরিব মানুষকে এ চাল না দিয়ে সেটি তারা বেশি দামে বিক্রি করছে। অভিযানে ১৭ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়েছে।