টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের দান করল কাশ্মীরি শিশু

টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা সহায়তায় দান করল ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের আট বছর বয়সী এক শিশু।

সবুজ রঙের একটি ব্যাংকে জমানো সব রুপি প্রশাসনের হাতে তুলে দিল সে।

আট বছরের শিশুর এমন মহানুভবতার স্তুতি গাইছেন জম্মু ও কাশ্মীরের বাসিন্দারা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘটনাটি শেয়ার করে ওই বালকের প্রশংসা করছেন নেটিজেনরা।

ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, করোনা মোকাবেলায় অর্থদান করা ওই বালকের নাম মালিক উবেদ। কাশ্মীরের নৌপাড়া এলাকার বাসিন্দা সে। স্থানীয় বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ছে মালিক উবেদ।

মঙ্গলবার বান্দিপোরায় জেলা কমিশনারের অফিসে গিয়ে নিজের সেই ছোট্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেয় মালিক উবেদ।

এ বিষয়ে টুইট করেছে জম্মু ও কাশ্মীরের তথ্য ও জনসংযোগ দফতর।

টুইটে লেখা হয়েছে, এই আট বছরের ছেলেটি– নৌপাড়ার মালিক উবেদ, চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র। সে ডিসি বান্দিপোরা অফিসে গিয়েছিল তার ব্যাংকটি সঙ্গে নিয়ে। সেখানে ব্যাংকটি ডেপুটি কমিশনারের হাতে তুলে দেয় সে এবং সব অর্থ কোভিড ১৯-এর মোকাবেলায় দান করে। সে যখন কমিশনারের ঘরে গিয়ে নিজের ওই ব্যাংক জমা দেয়, তখন কর্মকর্তারা সবাই চমকে গিয়েছিল।

টুইটটিতে ইতিমধ্যে কয়েক হাজার লাইক ও অসংখ্য কমেন্ট জমা পড়েছে। এত খুদে বালকের এমন দয়ালু মনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা।