অনুপ্রবেশ করে পাঁচ বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে ভারতের কারাগারে পাঠালো বিএসএফ

ফেব্রুয়ারি ২, ২০২০ । নিজস্ব প্রতিনিধি


রাজশাহীর গোদাগাড়ী সীমান্ত থেকে ধরে নিয়ে যাওয়া পাঁচ বাংলাদেশিকে ফেরত দেয়নি ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে ভারতীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পাঁচ বাংলাদেশিকে অনুপ্রবেশের দায়ে আদালতে নেয়ার কথা জানায় বিএসএফ। এর আগে শুক্রবার (৩১ জানুয়ারি) বিকেলে গোদাগাড়ী উপজেলার খরচাকা সীমান্ত থেকে চার বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে যায় তারা।

তারা হলেন পবা উপজেলার গহমাবোনা গ্রামের রাজন হোসেন (২৫), সোহেল রানা (২৭), কাবিল হোসেন (২৫), শাহীন আলী (৩৫) ও শফিকুল ইসলাম (৩০)। তারা পেশায় জেলে। পদ্মায় মাছ শিকারের উদ্দেশ্যে যান তারা।

বিজিবির রাজশাহীর ১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দিন মাহমুদ বলেন, শুক্রবার পদ্মানদী থেকে ধরে নিয়ে যাওয়া পাঁচ জেলের মুক্তি চেয়ে বিএসএফকে পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানায় বিজিবি। কিন্তু এতে সাড়া দেয়নি তারা। পরে বিএসএফের পক্ষ থেকে জানানো হয় শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় নির্মল চরের সীমান্ত পিলার নং ৫৩/২/এস-এর কাছে পতাকা বৈঠক হবে। বিএসএফের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বিজিবির প্রতিনিধি দল সেখানে হাজির হলেও আসেনি বিএসএফ। ফলে বিজিবিকে শূন্যহাতেই ফিরতে হয়।

পরে আবারও বিকেল সাড়ে ৪টায় পতাকা বৈঠকের বসার প্রতিশ্রুতি দেয় বিএসএফ। পতাকা বৈঠকে এসে বিএসএফ বিজিবিকে জানায় অনুপ্রবেশের অভিযোগে পাঁচ বাংলাদেশিকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

তবে বিজিবির পক্ষ থেকে কড়া প্রতিবাদ জানিয়ে বলা হয়েছে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে অনুপ্রবেশ করে বিএসএফ পাঁচ জেলেকে পদ্মা নদী থেকে ধরে নিয়ে গেছে। জবাবে কেবল দুঃখপ্রকাশ করেছে বিএসএফ।