পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক জয়

মার্চ ২, ২০১৬

BD-players-celebrate-NS_0২০১২ সালে প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে উত্তেজনাপূর্ণ সেই ম্যাচটা মাত্র ২ রানে হেরে শিরোপা জয়ের স্বাদ পায়নি লাল-সবুজের দল। এবার এশিয়া কাপের অঘোষিত সেমিফাইনালে সেই পাকিস্তানকেই ৫ উইকেটে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠেছে মাশরাফি বাহিনী।

এরআগে টস জিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাট করে বাংলাদেশকে ১৩০ রানের টার্গেট দিয়েছে পাকিস্তান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তানের সংগ্রহ ১২৯ রান। নির্ধারিত ২০ ওভারের মধ্যে ১৯ ওভার ১ বল খেলে ঐতিহাসিক জয় তুলে নেয় মাশরাফিরা।

দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে আল-আমিন হোসেনের বলে মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন খুররাম মনজুর।

এরপর চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে শারজিল খানকে সরাসরি বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান আরাফাত সানি।

দলীয় ১৮ রানের মাথায় মাশরাফির বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরেন মোহাম্মদ হাফিজ।

এরপর উমর আকমলকে ৪ করার পরই সাকিবের হাতে ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে ফেরান তাসকিন আহমেদ।

দলীয় ৯৮ রানের মাথায় আরাফাত সানির বলে সাব্বির রহমানের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন শোয়ব মালিক।

শহীদ আফ্রিদিকে শূণ্য রানে সাজঘরে ফেরান আল-আমিন হোসেন।

১২০তম বলে সাব্বির রহমানের হাতে ক্যাচ বানিয়ে আনোয়ার আলীকে আউট করেন আল-আমিন হোসেন।

বুধবার মিরপুরের শের-এ-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এশিয়া কাপের মহাগুরুত্বপূর্ন ম্যাচে টস জিতে পাকিস্তান দলপতি শহীদ আফ্রিদি ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মুর্তজা, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিথুন, সাব্বির রহমান, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, আরাফাত সানি, তাসকিন আহমেদ, তামিম ইকবাল ও আল-আমিন হোসেন।

পাকিস্তান দল: শহিদ আফ্রিদি, খুররম মনজুর, মোহাম্মদ আমির, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ ইরফান, মোহাম্মদ সামি, শারজিল খান, সরফরাজ আহমেদ, শোয়েব মালিক, উমর আকমল ও আনোয়ার আলী।