প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেখা না পেয়ে মুক্তিযোদ্ধার আত্মহত্যা

মার্চ ৩, ২০১৬

মুক্তিযোদ্ধাদুইদিন ধরে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে গিয়ে ব্যর্থ হয়ে আত্মহত্যা করেছেন গোপালগঞ্জের একজন মুক্তিযোদ্ধা।

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ের পেছনে আত্মহত্যা করেন ওই মুক্তিযোদ্ধা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের শিক্ষানবিশ চিকিৎসক ডা. ফারজিনা জাহান।

নুরুল ইসলাম একজন মুক্তিযোদ্ধা। তার বাড়ি গোপালগঞ্জের গণগ্রামের বাসিন্দা।

ডা. ফারজিনা জাহান বলেন, সকাল সাড়ে ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পেছনের গেট লুকাস ব্যাটারি মোড়ের সামনে থেকে বিষপান করা অবস্থায় পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামকেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

তিনি আরো বলেন, পরে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে তিনি মারা যান। ইসিজি করার আগেই নুরুল ইসলামের মৃত্যু হয়।

তেজগাঁও থানার এসআই মামুন শাহ জানান, খবর পেয়ে লুকাস ব্যাটারির মোড় থেকে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশের ধারণা তিনি বিষাক্ত কিছু পান করে আত্মহত্যা করেছেন।

নুরুল ইসলামের লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, দুইদিন ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে অপেক্ষা করছিলেন মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম। কিন্তু দেখা না পেয়ে শেষ পর্যন্ত বিষপানে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন তিনি।