প্রবল বর্ষণ, পাহাড়ি ঢল ও জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের প্রায় সবকটি এলাকা। উপরি হিসেবে যোগ হয়েছে কাপ্তাই বাঁধের ছেড়ে দেয়া পানি। কথাও হাঁটু পানি, কোথাও কোমর সমান আবার কোথাওবা বুক-গলা ছাড়িয়ে যাবার হুমকি দিচ্ছে।

নগরীর অপেক্ষাকৃত উঁচু এলাকায়ও পানি জমতে দেখা গেছে। ফলে কার্যত বিকল হয়ে পড়েছে নগরীর সড়ক পরিবহন ব্যাবস্থা। অনেক জায়গায় যানবাহন বিকল হয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। বেশির ভাগ দোকানপাটই বন্ধ রাখতে বাধ্য হচ্ছে দোকানীরা। মালামাল রক্ষা করায় এখন দায় হয়ে পড়েছে। অপেক্ষাকৃত নিচু এলাকার কোথাও কোথাও লোকজন বাসা ছাড়তে বাধ্য হয়েছে। অফিস আদালতের কার্যক্রমও স্থবির হয়ে পড়েছে।

চাকতাই বাজারের ছোট বড় প্রায় সব দোকান ও গুদাম জোয়ারের পানিতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। প্রায় কয়েকশ কোটি টাকার ক্ষতির আশংকা করছেন দোকানীরা।
আবহাওয়া অফিস থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী চট্টগ্রামে গতকাল (২৪ তারিখ) রেকর্ডকৃত বৃষ্টির পরিমাণ ছিল ২৩২ মিলিমিটার। আজ (২৫ তারিখ) এখন পর্যন্ত রেকর্ডকৃত বৃষ্টির পরিমাণ ২২৩ মিলিমিটার।

স্থানীয় মানুষ বলছে, ১৯৯১ সালের জলোচ্ছ্বাসের পর এত পানি তারা আর দেখেননি।