ফিলিস্তিনিদের সরাসরি হত্যা করুন: ইসরাইলের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মার্চ ২, ২০১৬

136258_1ফিলিস্তিন দখলদার ইহুদিবাদী ইসরাইলের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাভিগডোর লিবারম্যান মুসলমানদের প্রথম কিবলা-কেন্দ্রীক গণ-প্রতিরোধ আন্দোলন বা আলকুদসের ইন্তিফাদা দমনের জন্য ১০ দফার এক নৃশংস প্রস্তাব দিয়েছেন তেল-আবিব শাসকগোষ্ঠীর কাছে।

ওই প্রস্তাবে তিনি বলেছেন, আলকুদসের ইন্তিফাদা দমনের জন্য ফিলিস্তিনিদের আর গ্রেফতার করার দরকার নেই, বরং এখন থেকে সরাসরি তাদের হত্যা করতে হবে।

লিবারম্যান ফিলিস্তিনি সংগ্রামীদের ওপর দমন অভিযান জোরদারের জন্য তার প্রস্তাবিত ১০ দফা কর্মসূচি বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে বলেছেন, ফিলিস্তিনিদেরকে সরাসরি হত্যার নীতিতে ফিরে যেতে হবে, সংগ্রামী অভিযানের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি ও পরিবারের সদস্যদের গাজায় নির্বাসন দিতে হবে এবং কিছু আরো কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে।

নেতানিয়াহুর সরকার ইন্তিফাদা দমন করতে পারছে না বলে লিবারম্যান ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

লিবারম্যানের এই নতুন প্রস্তাবের খবর এমন সময় প্রকাশিত হল যখন বর্ণবাদী ইসরাইলের আরো অনেক কর্মকর্তা এর আগেও আলকুদসের ইন্তিফাদা দমনের ক্ষেত্রে ফিলিস্তিনিদের ওপর হত্যাযজ্ঞ, পুড়িয়ে মারা ও নানা নির্যাতন-পদ্ধতি সফল হয়নি বলে স্বীকার করেছেন। এতসব দমন-পীড়ন সত্ত্বেও সংগ্রামী ফিলিস্তিনিরা কোনো ভয়-ভীতি ছাড়াই দখলদার ইসরাইলের বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে বলে তারা উল্লেখ করেছেন।

রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের প্রতীক দখলদার ইসরাইলের বিরুদ্ধে বেশ কিছু কাল ধরে অধিকৃত আলকুদস-কেন্দ্রীক ইন্তিফাদা চালিয়ে যাচ্ছে সাহসী ফিলিস্তিনিরা। তাদের বীরত্বপূর্ণ অভিযানে এ আন্দোলনের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৩৩ জন দখলদার ইহুদিবাদী নিহত হয়েছে।

এদিকে শত শত ইসরাইলি তাদের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর বাসভবনের সামনে জড় হয়ে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছে। তারা ইসরাইলিদের নিরাপত্তাহীনতার প্রতিবাদে এই ধর্মঘট পালন করে। ‘এ পরিস্থিতি আর সহ্য করতে পারব না’ বলে তারা শ্লোগান দেয়।

সূত্র: আল মনিটর