ফিলিস্তিন থেকে ১২৯ মিলিয়ন ডলারের রাজস্ব চায় ইহুদিবাদী ইসরাইল

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নাহিয়ান হাসান


ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের নাগরিক বিষয়ক কমিশনের চেয়ারম্যান, হুসাইন শেখ রবিবার (২৬ এপ্রিল) ফিলিস্তিনের রামাল্লায় এক বিবৃতিতে বলেছেন যে, “ফিলিস্তিনি সরকারের কাছ থেকে ইহুদীবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের কেন্দ্রীয় আদালতের ৪৫০ মিলিয়ন শেকেল (প্রায় ১২৯ ডলার) রিজার্ভ করার সিদ্ধান্ত ‘জলদস্যুতা’ এবং ‘চুরি’ ছাড়া আর কিছুই নয়”।

আবার অপর দিকে এর আগে জেরুসালেমে অবস্থিত ইহুদীবাদী ইসরাইলের কেন্দ্রীয় আদালত রবিবার
(২৬ এপ্রিল) ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের কারণে ‘করের রাজস্বতে’ ৪৫০ মিলিয়ন শেকেল (প্রায় ১২৮মিলিয়ন ডলার) বাজেয়াপ্ত করার রায় দিয়েছে। আদালত দাবি করেছে যে,’বাজেয়াপ্ত করা অর্থ’ ইস্রায়েলের স্বার্থে আঘাত হানার লক্ষ্যে যে সমস্ত অভিযান পরিচালিত হয়েছে এবং উক্ত অভিযানগুলোর শিকার ক্ষতিগ্রস্ত ইসরাইলের পরিবারগুলোর ক্ষতিপূরণের বিনিময় স্বরূপ ছিল।

হুসাইন শেখ এক টুইট বার্তায় বলেন, “এ জাতীয় (ইসরাইলী) সিদ্ধান্ত আমাদেরকে সিদ্ধান্তহীনতায় ফেলে দিয়ে জাতীয় ও কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের সিদ্ধান্তগুলি বাস্তবায়নের নিকটে নিয়ে আসে”।
তিনি তার টুইটবার্তায় ইহুদীবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের সরকারের সাথে দ্বিপক্ষীয় সমন্বয় বন্ধ করার এবং তাদের সাথে স্বাক্ষরিত চুক্তিগুলি স্থগিত করার ব্যাপারে ফিলিস্তিন স্বাধীনতা সংস্থার জাতীয় ও কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের পূর্বের সিদ্ধান্তগুলোর কথাও এসময় উল্লেখ করছেন।

তিনি ইস্রায়েলি আদালতের এই রায়কে “জলদস্যুতা ও চুরি” বলে অভিহিত করেছেন।

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের অন্তত মিলিয়ন ডলার বাজেয়াপ্ত করে রেখেছে ইহুদীবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল। এই ঠুনকো অজুহাতে যে, “পরবর্তীকালে ফিলিস্তিনি বন্দীদের এবং ইসরাইল কর্তৃক নিহতদের পরিবারকে মাসিক অর্থ প্রদান করা হবে”।