বগুড়ায় ত্রাণের ১৬৮ বস্তা চালসহ ২ আ’লীগ নেতা আটক

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ১৬৮ বস্তা সরকারি চাল অবৈধভাবে মজুদের অভিযোগে স্থানীয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমানসহ (৫০) ২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

শনিবার (১১ এপ্রিল) রাত ১টার দিকে উপজেলার ভাগশিমাল গ্রামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

আটককৃত অপর ব্যক্তি হলেন- আওয়ামী লীগ নেতা আনিছুর রহমানের সহযোগী একই উপজেলার তারাটিয়া গ্রামের মৃত কাজেম উদ্দিনের ছেলে আনসার আলী (৪৩)। তবে ওই কালোবাজারির সঙ্গে জড়িত খাদ্য অধিদপ্তরের স্থানীয় ডিলার ভাগশিমলা গ্রামের মিলন আলী সরদার পালিয়ে গেছে।

বগুড়ায় র‌্যাব-১২ কোম্পানি কমান্ডারের কার্যালয়ে রোববার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী তার বরাদ্দ করা ১০ টাকা কেজির চাল নন্দীগ্রামে কর্মহীন ও দুঃস্থদের মাঝে বিক্রি না করে একটি চক্র কালোবাজারির মাধ্যমে কিনে অবৈধভাবে মজুদ করছে বলে তাদের কাছে খবর ছিল।

র‌্যাবের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার সহকারি পুলিশ সুপার রওশন আলী জানান, গোপনে খবরটি পেয়ে শনিবার গভীর রাতে আনিছুর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। তখন তার বাড়িতে মজুদ করা অবস্থায় ১০ টাকা কেজি দরের ১৬৮ বস্তা চাল পাওয়া যায়। পরে ওই বাড়ি থেকে তাকে ও তার সহযোগী আনসার আলীকে গ্রেফতার করা হয়।

কমান্ডার রওশন আলী আরও জানান, গ্রেফতার ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে র‌্যাবের পক্ষ থেকে বগুড়া ক্যাম্পের সহকারি পরিচালক (ডিএডি) সৈয়দ আলী বাদী হয়ে নন্দীগ্রাম থানায় মামলা দায়ের করেছেন।