বাংলাদেশে ইসকনের দুই গ্রুপের সংঘর্ষকে ‘হিন্দু নির্যাতন’ বলে ভারতীয় মিডিয়ায় প্রচার

ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২০ । আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বাংলাদেশে ইসকনের দুই গ্রুপের সংঘর্ষকে ‘হিন্দু নির্যাতন’ বলে ভারতীয় মিডিয়ায় প্রচার করা হচ্ছে।

দেশটিতে ফেসবুক, টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপসহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে গত কয়েকদিন ধরে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে বাংলাদেশের একটি ইসকন হিন্দু মন্দিরে হামলার ভিডিও। সেখানে দাবি করা হচ্ছে, ‘বাংলাদেশে হিন্দু মন্দিরে মুসলমানরা আক্রমণ করেছে’।

বিজেপি, আরএসএস-সহ কয়েকটি উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল ও তাদের সমর্থকরাই এই সব ভিডিও ও স্থিরচিত্র সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল করে তুলেছে।

ভারতে মুসলিম বিরোধী নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যখন তীব্র বিতর্ক হচ্ছে তখন এই মিথ্যা প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

বিতর্কিত ওই আইনে বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

এদিকে গত ১৭ জানুয়ারি নেত্রকোনার মোক্তারপাড়ায় ইসকনের ওই গৌরগোপাল বিগ্রহ মন্দিরের সংঘর্ষের বিষয়ে জানাগেছে, হামলাটি মুসলমানরা করেনি। বরং ওই জমি যে ৩৫ জন জবরদখল করে রেখেছে, তার মধ্যে ২৫ জনই হিন্দু ধর্মাবলম্বী, বাকি প্রায় দশজনের মতো মুসলিম। পুলিশি এজাহারেও এর প্রমাণ আছে।