ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | এম  মাহিরজান


ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন লন্ডনের সাবেক মেয়র আলেকজান্ডার বরিস ডি জনসন। ব্রিটেনের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টি তাদের নতুন নেতা হিসেবে তাকে বেছে নিয়েছে।

২০১৮ সালে বরিস জনসন ইসলাম বিদ্বেষী মন্তব্য করে আলোচনায় এসেছিলেন। জনসন একটি মতামত কলামে লিখেন, মুখ ঢেকে বোরকা পরা মুসলিম নারীদের দেখতে অনেকটা ‘ব্যাংক ডাকাতের’ মতো। তাদেরকে ‘চিঠিরবাক্স’ বলেও মন্তব্য করে ডানপন্থী এই ব্রিটিশ রাজনীতিক।

 

পরবর্তীতে জনসনের বিরুদ্ধে ইসলাম-বিদ্বেষের অভিযোগ আনা হলে তিনি তা অস্বীকার করেন। সেইসাথে এজন্য ক্ষমা চাওয়ার বিষয়েও সম্মত হননি তিনি।

ইসলাম-বিদ্বেষের অভিযোগে অভিযুক্ত  বরিস জনসনের পূর্ব পুরুষরা ছিলেন মুসলিম। বরিসের বাবার নাম স্ট্যানলি জনসন। তার বাবা হচ্ছেন ওসমান কামাল। আর ওসমান কামালের বাবা হচ্ছেন খেলাফতে ওসমানীর মন্ত্রী আলী কামাল বেগ।

আলী কামাল বেগ খেলাফতে ওসমানীর একেবারে শেষ সময় এসে স্বল্প সময়ের জন্য ফরিদ পাশার মন্ত্রীসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন।

বরিস জনসনের বাবার দাদা ও দাদি আলী কামাল বেগ এবং উইনিফ্রেড ব্রুন

আলী কামাল পাশার দুই স্ত্রী ছিল। একজনের নাম ছিল সাবিহা খানম। অন্যজন ছিলেন অ্যাংলো-সুইস উইনিফ্রেড ব্রুন।

১৯০৯ সালে উইনিফ্রেড ব্রুন ঘরে জন্ম নেন ওসমান কামাল। এর আগে এই দম্পতীর আরেকটি কন্যা সন্তান ছিল, যার নাম সালমা। ওসমান কামালের জন্মের কিছুদিন পর উইনিফ্রেড ব্রুন মারা যান।

তখন আলী কামাল বেগ ও উইনিফ্রেড ব্রুন দম্পতীর দুই সন্তান সালমা এবং ওসমান কামাল তাদের নানী মার্গারেট জনসনের কাছেই বড় হন।

মা ও নানীর নামের সাথে মিলিয়ে ওসমান কামাল নাম পরিবর্তন করে ওসমান উইনিফ্রেড জনসন নাম ধারণ করেন।

ওসমান উইনিফ্রেড জনসন পুত্র হচ্ছেন স্ট্যানলি প্যাট্রিক জনসন। এই স্ট্যানলি প্যাট্রিক জনসনের পুত্রই হচ্ছেন নবনির্বাচিত ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী আলেকজান্ডার বরিস ডি জনসন।

বরিস জনসনের বাবা স্ট্যানলি প্যাট্রিক জনসন