ভারতে মুসলিম তরুণ ও যুবকদের অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে

ভারতের বহু মুসলিম তরুণ ও যুবককে গত কয়েকদিনে পরিকল্পিতভাবে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এ অভিযোগ করেছে দেশটির জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ।

সংগঠনের নেতারা নয়াদিল্লির পুলিশ প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এ অভিযোগ জানান। এ সময় তারা মুসলমানদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যাপক ধরপাকড় অভিযানে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের নেতারা বলেছেন, মুসলিম তরুণদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত উপায়ে ধরপাকড় অভিযান চলছে।

নয়াদিল্লির সাম্প্রতিক মুসলিম বিরোধী ভয়াবহ সহিংসতার জন্য উগ্র হিন্দু তরুণরা দায়ী হলেও রহস্যজনকভাবে পুলিশ এখন উল্টো মুসলিম তরুণদের আটক করছে। বিষয়টি নিয়ে দিল্লির মুসলমানরা তীব্র আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন এবং এখনও যারা আটক হননি তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

ভারতীয় পুলিশের শীর্ষ কর্তারা বিষয়টি তদন্ত করে দেখার আশ্বাস দিলেও দেশটির মুসলিম নেতারা মনে করছেন, যতদিন তাদের বিরুদ্ধে তৈরি করা বৈষম্যমূলক নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বাতিল করা না হচ্ছে ততদিন এই পরিস্থিতি অব্যাহত থাকবে এবং আরো খারাপের দিকে যাবে।

নয়াদিল্লিতে গত মাসের শেষ নাগাদ(২৩-২৬ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত মুসলিম বিদ্বেষী ওই সহিংসতায় কমপক্ষে ৫২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৪ শতাধিক মানুষ। এ সময় মুসলমানদের বহু ঘরবাড়ি, দোকানপাট, মসজিদ ও মহল্লা জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো দিল্লির এই সাম্প্রতিক সহিংসতাকে সংখ্যালঘু মুসলিমদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত হামলা বলে উল্লেখ করেছে। তবে ওই হামলার দুই সপ্তাহ পেরিয়ে যাওয়ার পরও এর সঙ্গে জড়িত উগ্র হিন্দুদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ।

Leave a Reply