কর্নেল অলির জাতীয় মুক্তি মঞ্চে কি মুহিব খানও আছেন?

জুন ২৭, ২০১৯

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আলাউদ্দীন বিন সিদ্দিক


১৮ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ‘জাতীয় মুক্তি মঞ্চ’ নামে নতুন সংগঠনের ঘোষণা দিয়েছেন এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব) অলি আহমেদ। আজ বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বিকাল সোয়া ৪টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন।

কর্নেল অলি যখন ‘জাতীয় মুক্তি মঞ্চ’ এর ঘোষণা দেন, তখন তার পাশে অন্যান্যদের সাথে বসা ছিলেন জাগ্রত কবি মুহিব খানও।

মুহিব খান ইতিপূর্বে ন্যাশনাল মুভমেন্ট নামে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেছিলেন। যদিও দলটির তেমন কোন কার্যক্রম নেই বললেই চলে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে মুহিব খান বলেন, ‘জাতীয় মুক্তি মঞ্চ’ নামের নতুন এই সগঠনটির আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে আমাকে দাওয়াত করা হয়েছিল, তাই সেখানে উপস্থিত ছিলাম। তাদের অনেক দাবীর সাথে আমরা একমত। তবে আমাদের দল ‘ন্যাশনাল মুভমেন্ট’ এখনো পর্যন্ত এই সংগঠনের সাথে আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্ত হয়নি। আমি সেখানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলাম।

আগামীতে ন্যাশনাল মুভমেন্ট জাতীয় মুক্তি মঞ্চের সাথে যুক্ত হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, সম্ভাবনা আছে। কারণ ন্যাশনাল মুভমেন্টের অনেক দাবির সাথেই তাদের দাবিগুলো সংগতিপূর্ণ। তাই আগামীতে যুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায়না।

জাতীয় মুক্তি মঞ্চের ১৮ দফা দাবিগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- নতুন করে জাতীয় সংসদ নির্বাচন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, দেশ বিরোধী চুক্তি প্রকাশ, রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান রক্ষা, জাতীয় বিশেষজ্ঞ কমিশন গঠন, গুম-খুন বন্ধের পদক্ষেপ ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার।

মুহিব খান ছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম, জাগপার সভাপতি তাসমিয়া প্রধান, খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আহমদ আলি কাসেমী।

মঞ্চে না বসলেও সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মাওলা রনি, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়া প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে অলি আহমেদ বলেন, ‘আমাদের কর্মসূচি হবে শান্তিপূর্ণ। লক্ষ্য হবে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা ও জনগণের সরকার গঠন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আশা করি আমাদের এ কর্মসূচিতে জনগণ এবং সব বিরোধী দল নিজ নিজ অবস্থান থেকে সমর্থন দেবেন এবং সহযোগিতা করবেন।’