মানব পাচারে জড়িত এমপি পাপুলের ব্যাংক হিসাব তলব

কুয়েত আটক হওয়া বাংলাদেশি এমপি কাজী শহীদ ইসলাম ওরফে পাপুলের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য তলব করেছে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)।

রোববার (১৪ জুন) সংস্থাটি থেকে এ সংক্রান্ত চিঠি দেশের সব ব্যাংকে পাঠানো হয়। চিঠিতে জরুরিভিত্তিতে এ তথ্য দিতে বলা হয়েছে।

বিএফআইইউর প্রধান আবু হেনা মুহাম্মাদ রাজী হাসান একটি জাতীয় দৈনিককে বলেন, বিভিন্ন সময়ে আমরা ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য তলব করি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বা সরকারের কোনো সংস্থা তথ্য চাইলে আমরা ব্যাংক অ্যাকাউন্টের ব্যাপারে খোঁজ নেই। এছাড়াও সংবাদপত্রে কারও ব্যাপারে সংবাদ ছাপা হলেও আমরা অ্যাকাউন্টের খোঁজ নিই।

বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে ব্যাংকগুলোতে পাঠানো চিঠিতে উল্লেখ করা হয়- পাপুলের ব্যাংক হিসাবের বর্তমান এবং পেছনে লেনদেন হয়ে থাকলে জানাতে হবে। যেসব তথ্য জানাতে হবে এরমধ্যে রয়েছে- খোলা থেকে শুরু কেওয়াইসি (গ্রাহক পরিচিতি) ফর্ম, লেনদেনের প্রোফাইল এবং লেনদেনের সর্বশেষ তথ্য। চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের বাবা মরহুম মুহাম্মাদ নুরুল ইসলাম, মা কাজী তাহুরুন নেচ্ছা, ঠিকানা কাজী বাড়ী, ওয়ার্ড নং ৮, রায়পুর পৌরসভা, লক্ষ্মীপুর।

মানব পাচারের অভিযোগে সম্প্রতি কুয়েতে আটক হন পাপুল। এ ব্যাপারে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আনাস আল সালেহ টুইট বার্তায় বলেছেন, বাংলাদেশি এই আইনপ্রণেতা মানব পাচারের সঙ্গে জড়িত। তিনি বড় পরিসরে ভিসার বিজনেসের জন্য কুয়েতে এসেছিলেন। বিষয়টির তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষ হলে কুয়েতের আইন অনুসারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Previous post মানুষ না থাকলে বাজেট কার জন্য করবো? :অর্থমন্ত্রী
Next post নাসিমকে নিয়ে স্ট্যাটাস দেওয়ায় ইবি ছাত্র ইউনিয়ন সম্পাদক বহিষ্কার