যশোরে ২ মাথা, ৪ হাত পা বিশিষ্ট শিশুর জন্ম

যশোরের চৌগাছায় খুশি খাতুন নামের এক নারী ২ মাথা ও ৪ হাত পা বিশিষ্ট একটি শিশুর জন্ম দিয়েছেন। সে উপজেলার মশিউরনগর গ্রামের আনিছুর রহমানের মেয়ে। বর্তমানে শিশুটি সুস্থ আছেন বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। শিশুটি দেখার জন্য এলাকার শত শত মানুষ ওই বাড়িতে ভিড় করছেন।

জন্মগত ত্রুটি নিয়ে শিশুটির জন্ম হওয়ায় চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎকগণের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছে পরিবার।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মশিউরনগর গ্রামের আনিছুর রহমানে মেয়ে খুশি খাতুনের সাথে হাকিমপুর গ্রামের উজ্জ্বল হোসেনের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ৯ বছর বয়সী একটি মেয়ে আছে। গত ৩ মার্চ দ্বিতীয়বার সন্তান জন্ম দেন খুশি। তবে এবার জমজ সন্তানের মা হন তিনি। কিন্তু শিশুটির জন্মের সাথে সাথে ক্লিনিকের ডাক্তার ও পরিবারের লোকজন অবাক হয়েছেন। কেননা শিশুটি জমজ হলেও পৃথক নয়। ২ টি মাথা ও ৪টি হাত পা রয়েছে। বর্তমানে স্বাভাবিক শিশুর মত সুস্থ আছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। কিন্তু ওই পরিবারের লোকজন বেশ দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। এই শিশু তারা কিভাবে মানুষ করবেন। এখন প্রয়োজন বিশেষ অপারেশন। যে অপারেশনে শিশুটি পৃথক করবে এবং স্বাভাবিকভাবে বেড়ে উঠবে।

বর্তমানে মশিউরনগর গ্রামের আনিছুর রহমান তার মেয়ে খুশি খাতুনকে বাড়িতে এনেছেন। শিশুটির জন্মগত সমস্যার কথা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকার শত শত উৎসুক মানুষ দেখতে ভিড় করছেন তার বাড়িতে।

এ ব্যাপারে পিতা আনিছুর রহমানের সাথে জানান, আমার মেয়ের যে জোড়ালাগা শিশুর জন্ম হয়েছে তা নিয়ে খুব দুশ্চিন্তায় আছি। জোড়ালাগা বাচ্চাটি অপারেশন করলে ভালো হয়ে যাবে বলে অনেকে জানাচ্ছেন। কিন্তু কোথায় নিয়ে যাব, কি করব ভেবে পাচ্ছিনা। এ সময় তিনি দেশের বরেণ্য ডাক্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।