যাত্রী পরিবহনের খবর বিভ্রান্তিকর, দাবি রেলওয়ের

সম্প্রতি বিভিন্ন গণমাধ্যমে রেলওয়ের যাত্রী পরিবহনের যে সংবাদ ও ছবি প্রকাশিত হয়েছে তা ভুল ও বিভ্রান্তিকর বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

রেলওয়ের জনসংযোগ বিভাগ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ২৪ মার্চের পর থেকে বাংলাদেশ রেলওয়ে কোনও যাত্রীবাহী ট্রেন পরিচালনা করেনি। রেলওয়ের কর্মচারীদের বেতন-ভাতা ও পেনশনের টাকা পৌঁছানোর জন্য একটি বিশেষ ট্রেন হিসাব বিভাগের কর্মচারী ও রেলওয়ের নিজস্ব নিরাপত্তাবাহিনী নিয়ে কয়েকটি জেলায় চলাচল করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্বাভাবিক অবস্থায় সারা দেশে বাংলাদেশ রেলওয়ের কর্মকর্তাদের বেতন চেকের মাধ্যমে এবং অন্য সব কর্মচারীর বেতন, ভাতা ও পেনশন নগদ টাকায় পরিশোধ করা হয়। বর্তমানে রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকায় বিভিন্ন স্টেশন এলাকায় অবস্থিত কর্মচারীদের বেতন, ভাতা ও পেনশনের টাকা পৌঁছানোর জন্য রেলওয়ে ঢাকা, চট্টগ্রাম, পাকশী ও লালমনিরহাট বিভাগের অধীন বিভিন্ন রুটে একটি বিশেষ ট্রেন বিশেষ ব্যবস্থাপনায় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ সফিকুর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উল্লিখিত ট্রেনের মাধ্যমে কেবল রেলওয়ের হিসাব বিভাগের কর্মচারী ও রেলওয়ের নিজস্ব নিরাপত্তা বাহিনী সমন্বয়ে এবং জিআরপি পুলিশের সহায়তায় নগদ টাকা নিয়ে গত ৯ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত কয়েকটি জেলায় রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন, ভাতা ও পেনশন দেওয়া হয়। যাত্রী পরিবহনের জন্য কোনো ট্রেন চলাচল করেনি। ট্রেন চলাচলের যে খবর ও ছবি প্রকাশিত হয়েছে তা সঠিক নয়।