রংপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে দুই গৃহবধূর মৃত্যু, কোয়ারেন্টাইনে পরিবার

রংপুরের হারাগাছ ও মিঠাপুকুরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে দুই গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। তাদের শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) পিসিআর ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন হিরোম্ব কুমার রায় জানিয়েছেন, হারাগাছ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃতের নাম মিনা রানী । তিনি হারাগাছ পৌরসভার মেনাজবাজারের মদন কুমারের স্ত্রী এবং পেশায় সুইপার। ওই নারী কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি, কাশিতে ভুগছিলেন। মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) রাত থেকে গলাব্যথা হলে সকালে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, অন্যদিকে মিঠাপুকুরের কামালপুর গ্রামের এক নারী জ্বর, সর্দি, ও গলা ব্যাথা নিয়ে টাঙ্গাইলের হাসপাতালে যান। তার লাশ রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এসে নমুনা সংগ্রহ করে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

তিনি জানান, উভয় মৃত নারীর শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন আসার পর বেঝা যাবে তারা করোনা আক্রান্ত কিনা। এরই মধ্যে উভয় পরিবারের সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে।

Previous post জমিয়ত সভাপতির ইন্তেকালে নেজামে ইসলাম পার্টির শোক
Next post সরকারি চাল বিক্রির সময় শ্যালকসহ আওয়ামী লীগ নেতা আটক