রাজশাহীতে বকেয়া বেতনের দাবিতে চিনিকল শ্রমিকদের বিক্ষোভ

করোনাভাইরাস সঙ্কট মোকাবিলায় স্বাস্থ্য সুরক্ষা ছাড়া শ্রমিকদের কাজে যোগদানের আদেশ উপেক্ষা করে চার মাসের বেতন বকেয়াসহ বিভিন্ন দাবিতে রাজশাহী চিনিকলে (রাচিক) বিক্ষোভ করেছে শ্রমিক-কর্মচারীরা।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) সকালে চিনিকল প্রশাসনিক ভবনের সামনে এ বিক্ষোভ করেন তারা।

জানা যায়, রাজশাহী চিনিকলে ১৮ কোটি টাকা পাওনা আছে আখচাষিদের। চিনিকল শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মুজিবর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মুনতাজ আলী বলেন, এমনিতেই বেতন-ভাতা না পেয়ে আর্থিক সঙ্কটের কারণে শ্রমিক-কর্মচারীরা দীর্ঘদিন ধরে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। আবার কাজে যোগদানের বিষয়ে শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করেনি কর্তৃপক্ষ। এতে উত্তেজনা বিরাজ করে এবং শ্রমিকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে কাজে যোগদান না করেই চলে যায়।

রাজশাহী চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসএম সেলিম বলেন, চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের সদর দফতর থেকে চিঠি এসেছে। যেখানে সীমিত আকারে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে অফিসের কাজের বিষয়ে বলা হয়েছে। মিল-কারখানার কিছু যন্ত্রপাতি আছে যেগুলো প্রতিনিয়ত যত্ন নিতে হয়। এমন কর্মচারীরা না আসলে যন্ত্রপাতি নষ্ট হবে।

তিনি আরও বলেন, মিলের কর্মরতরা বেতন না পাওয়ায় অনেক কষ্টে দিন যাপন করছেন। বেতন-ভাতার বিষয়ে সদর দফতরে জানানো হয়েছে। চিনি বিক্রি করে বেতনভাতা দেওয়ার বিষয়ে বলা হয়েছে। চিনি বিক্রির টাকায় বেতন-ভাতা ও আখের মূল্য পরিশোধ করা হচ্ছে।