রাত জেগে চট্টগ্রামে তাবলিগী জোড়ে কাজ করেছে হাটহাজারী মাদরাসার ছাত্ররা

ডিসেম্বর ৫, ২০১৯ | জুনাইদ আহমাদ


আগামী ৬,৭ ও ৮ ই ডিসেম্বর তিনদিনের দাওয়াতে তাবলীগের জোড় হাটহাজারী থানাধীন চারিয়া মির্জাপুরে ইজতেমা ময়দানে অনুষ্ঠিত হইবে৷ এতে চট্টগ্রাম সহ ষোলটি জেলার মুসল্লি উপস্থিত হবেন। প্রায় বিশ লক্ষ বর্গফুট আয়তনের বিশাল ফসলি জমিতে সামিয়ানা টানিয়ে তৈরি করা হচ্ছে প্যান্ডেল৷ দৈনিক হাজার হাজার মুসল্লী সকাল থেকে সন্ধা পর্যন্ত সেচ্ছায় জোড়ের কাজ করছে৷ চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিভিন্ন মাদরাসার ছাত্ররাও জামাতবদ্ধ হয়ে ইজতেমার ময়দানে কাজের আঞ্জাম দিচ্ছে৷

জোড়ের সময় ঘনিয়ে এলেও কাজ বাকি থাকায় দীর্ঘ রাত জেগে কজ করেছে হাটহাজারী মাদরাসার উচ্চতর বিভাগের ছাত্ররা।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়,গতকাল সকাল থেকে নিয়ে করে অনেক রাত পর্যন্ত কাজ করেছে উচ্চতর তাফসীর ও কুরআন গবেষণা বিভাগ, উচ্চতর ইসলামী আইন গবেষণা বিভাগ,উচ্চতর হাদীস গবেষণা বিভাগ, উচ্চতর আরবী সাহিত্য বিভাগ, উচ্চতর তাজবীদ বিভাগ সহ উচ্চতর দাওয়া ইরশাদ বিভাগের প্রায় দেড় হাজার ছাত্র।

উচ্চতর বিভাগ সমূহ ছাড়াও অন্যান্য জামাতের ছাত্রবৃন্দও নিরলসভাবে কাজ করেছে।আলাদা আলাদাভাবে দাওরায়ে হাদীস, মিশকাত সহ অন্যান্য জামাতের ছাত্রবৃন্দও স্বতঃস্ফূর্তভাবে জোড়ে মাঠে কাজ করেছে।জামিয়ার সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী,চট্টগ্রাম লাভ লেইন মার্কাজের শুরার সাথী মুফতী জসিমউদদীন ও হাটহাজারীর সহ-শিক্ষাপরিচালক মাওলানা আনাস মাদানী সহ অন্যান্য উস্তায়বৃন্দ কাজের সার্বিক তদারকি করেছেন।এবং এখলাসের সহিত নিরলসভাবে কাজের করার প্রতি উৎসাহ অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন।

এদিকে আল্লামা শাহ আহমদ শফী গতকাল ৩ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের বাহিরে ৩দিনের দাওয়াতি সফরে যাওয়ার পথে হেলিকাপ্টার যোগে তাবলিগী জোড় এর মাঠ, পেন্ডেল ও অবকাঠামো প্রস্তুতির কাজ পরিদর্শন করেছেন।

এছাড়াও তিনি তাঁর দফতরে বৈঠকে ইজতেমার মাঠের কার্যক্রম তদারকি করার জন্য জামিয়ার আসাতেজাদের নিদের্শ প্রদান করেছেন এবং ইজতেমার মাঠের অবকাঠামো তৈরীতে জামিয়ার শির্ক্ষাথীদের ধারাবাহিকভাবে কাজ করার নির্দেশ প্রদান করেছেন।

শীতের রাতে খোলা ময়দানে রাত জেগে কাজের ব্যপারে তাদের অনুভূতির কথা জানতে চাইলে একাধিক ছাত্র ইনসাফকে জানান,জোড়ে আগত মেহমানদের খেদমত হিসেবে রাত জেগে কাজ করার মধ্যে আমরা আলাদা আনন্দ পাচ্ছি।শীতকালের দিন ছোট হওয়ায় রাতের কাজে বরকতও বেশি হয়।

মাঠের প্রায় সিংহভাগ কাজ শেষ।আজ বিকেলের আগেই বাকি কাজের সমাপ্তি হবে।আগামীকাল শুক্রবার থেকে শুরু হবে তিনদিন ব্যপী তাবলীগের জোড়।