রাস্তা তৈরিতে ব্যাপক অনিয়ম; নির্মাণের তিন দিন পর উঠে গেল পিচ

সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


দিনাজপুর বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের ঝাড়বাড়ী কলেজ মোড় থেকে কেডিএস বাজার পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার নতুন রাস্তা নির্মাণ চলছে। ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য এই রাস্তার ঠিকাদার হিসেবে কাজ করছেন হাবিব হোসেন।

গত মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) থেকে রাস্তায় পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়। এরই মধ্যে প্রায় দেড়শ’ মিটার রাস্তায় পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়েছে। তবে এ কাজ অত্যন্ত নিম্নমানের বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

রাস্তায় পিচ ঢালাইয়ের তিন দিনের মাথায় পিচ উঠে যাওয়া ও নিম্নমানের ইট ব্যবহারের অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ওই রাস্তার কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

অভিযোগকারী কেডিএস মোড়ের আব্দুল সাত্তার বলেন, এই রাস্তা তৈরিতে নিম্নমানের ইট দেওয়া হয়েছে, ইটের খোয়াও ভালোভাবে দেওয়া হয়নি। এই এলাকার লোকজনকে বোকা বানিয়ে লোক দেখানো ও দায়সারা কাজ হচ্ছে।

অভিযোগকারী আব্দুল মান্নান নামে একজন বলেন, রাস্তায় বালুও ভালোভাবে দেওয়া হয়নি। এদিকে, এলাকাবাসীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাস্তার কাজ দেখতে গতকাল বৃহস্পতিবার আসেন বীরগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়ামিন হোসেন। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঠিকাদারকে কাজ বন্ধ রাখতে বলেছেন।

বীরগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়ামিন হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে, কাজটি সঠিকভাবে হয়নি এবং কাজের মান খারাপ। হাত দিলেই পিচ উঠে যাচ্ছে। তাই কাজ বন্ধ রাখার জন্য ঠিকাদারকে বলা হয়েছে। স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলীকেও বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে।

এ ঘটনায় স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের বীরগঞ্জ উপজেলা উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফিরোজ হাসান বলেন, ‘কাজের অনেক টেকনিক্যাল বিষয় আছে। কাজ করলে উনিশ-বিশ হতে পারে। সমস্যা থাকলে সেটি সংশোধন করা হবে। কাজ খারাপ হোক এটি আমরাও চাই না। এখন প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।