দেওবন্দের সদরুল মুদাররিস মুফতি সাঈদ আহমদ পালনপুরীর ইন্তেকালে ইসলামী আন্দোলনের শোক

ভারতের দারুল উলূম দেওবন্দের সদরুল মুদাররিস মুফতি সাঈদ আহমদ পালনপুরীর ইন্তেকালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী রেজাউল করীম চরমোনাই পীর ও নায়েবে আমীর মুফতী ফয়জুল করীম গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

মঙ্গলবার (১৯ মে) এক শোকবার্তায় উক্ত নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেন।

শোকবাণীতে চরমোনাই পীর বলেন, প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন ও বরেণ্য বুজুর্গ মুফতি সাঈদ আহমদ পালনপুরী দারুল উলুম দেওবন্দের সকলের প্রিয় ও শ্রদ্ধেয় একজন উস্তায ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন পর্যন্ত দেওবন্দের শায়খুল হাদীস ছিলেন। তিনি ভারতবর্ষসহ উপমহাদেশে একজন মুহাক্কিক আলেম ও মুহাদ্দিস হিসাবে প্রসিদ্ধ ছিলেন। তাকে বলা হত উস্তাযুল আসাতিযা।

চরমোনাই পীর আরও বলেন, পৃথিবী জুড়ে হাজার হাজার আলেম তার ছাত্র কিংবা তার ছাত্রের ছাত্র রয়েছে। বর্তমানে তার মত যোগ্য ও বিচক্ষণ আলেমে দ্বীনের বড়ই প্রয়োজন ছিলো। যার অভাব কোনদিন পুরণ হবে না। মহান রব্বুল আলামিন এ মহান বুজুর্গের সকল নেককাজ কবুল করে তাকে জান্নাতের সর্বোচ্চ মর্যাদা দান করুন, আমীন।

এ ছাড়াও পৃথক পৃথক বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেছেন দলের মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা নূরুল হুদা ফয়েজী ও সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, জাতীয় শিক্ষক ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, সেক্রেটারী মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, উত্তর সভাপতি প্রিন্সিপাল শেখ ফজলে বারী মাসউদ ও সেক্রেটারী মাওলানা আরিফুল ইসলাম।

Previous post ১৯ মে | গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১২৫১ জনের করোনা শনাক্ত
Next post ইফা প্রকল্প থেকে দারুল আরকাম মাদরাসা বাদ দেওয়া গভীর ষড়যন্ত্র: জাতীয় শিক্ষক ফোরাম