সারাবিশ্বে লকডাউনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ; কারফিউতে থাকা কাশ্মীরের কী অবস্থা: ইমরান খানের প্রশ্ন

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নাহিয়ান হাসান


পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, সার্বিক সহায়তা সত্ত্বেও বিশ্বজুড়ে লকডাউনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ, বিক্ষোভ করা হচ্ছে। আর সুবিধা বঞ্চিত কাশ্মীরীদের উপর জারি করা আট মাসের কারফিউতে তাদের দুর্দশা সম্পর্কে জাতিসংঘকে অবশ্যই ভাবিয়ে তুলবে

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) নিজের ভেরিফাইড টুইটারে এ বার্তা লিখেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

তিনি আরো বলেন, “বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামারী ভয়াবহ রূপ ধারণ করার ফলে এর প্রকোপ থেকে দেশ ও দেশের জনগণকে রক্ষা করতে বিশ্বজুড়ে সতর্কতাবশত কোথাও আংশিক আবার কোথাও সার্বিক লকডাউনের ব্যাবস্থা করা হয়। ফলশ্রুতিতে বিভিন্ন দেশে দেশে এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা হয়, যা জাতিসংঘকে কট্টর হিন্দুত্ববাদী মোদী সরকারের কাশ্মীরি পলিসি সম্পর্কে সচেতন করে তুলতে অত্যন্ত সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে।”

তিনি আরো বলেন, “অধিকৃত কাশ্মীরে এই অমানবিক রাজনৈতিক ও সামরিক কারফিউ আট মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে। শুধু তাই নয়, কোনো ধরণের চিকিৎসা সেবা এবং আর্থিক, যোগাযোগ ও খাদ্য সহায়তা ছাড়াই এই অযৌক্তিক কারফিউ কাশ্মীরী মুসলিম জনগণের উপর জোরপূর্বক চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে । এই অযৌক্তিক কারফিউর সময়ে কাশ্মীরের জনগণও প্রাথমিক মৌলিক চাহিদা থেকে বঞ্চিত ছিল। বরং তাদেরকে তো তাদের নূন্যতম মৌলিক চাহিদা থেকেও বঞ্চিত করা হয়েছিল এই কারফিউতে।”

এছাড়াও তিনি বলেন, “সব রকমের সহায়তা অর্থাৎ চিকিৎসা, আর্থিক, যোগাযোগ এবং পুষ্টিকর সহায়তা সত্ত্বেও, এই প্রাদুর্ভাবের কারণে লকডাউনে থাকা জনগণ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করে চলেছে। সম্ভবত জাতিসংঘ এখন জম্মু ও কাশ্মীরের লোকদের দুর্দশার সন্ধান করতে পারে যারা বর্তমানে সবচেয়ে বেশি দমন-পীড়নের মুখোমুখি।