সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখছে ইনসাফ

নূর হোসাইন সবুজ | প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক : ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরী


ইনসাফ একটি ইসলামিক মিডিয়া। অর্ধযুগ আগের ইনসাফ সকল বাধাবিপত্তি পেরিয়ে ইসলামিক ঘরানার শক্তিশালী মিডিয়া হিসেবে রূপ নিয়েছে। হলুদ সাংবাদিকতার মুখোশ উন্মোচনে আপোষহীন ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। অর্ধযুগ আগে কে জানতো ইনসাফ একদিন তাঁর লক্ষ্যে পৌঁছবে? মুখোশ উন্মোচিত করবে সকল বাকশালি হলুদ মিডিয়ার। আজ থেকে অর্ধযুগ পূর্বে ইনসাফ সম্পাদক সাইয়েদ মাহফুজ খন্দকার ভাই যাত্রা শুরু করেন। আল্লাহর অশেষ কৃপায় ইনসাফ আজ সর্ব মহলে স্বীকৃত।

আমরা জানি, বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে ইনসাফ অনন্য। বিশেষত ইসলাম বিদ্বেষী সকল অপশক্তির মোকাবেলায় সর্বপ্রথম অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে ইনসাফ। যেকোনো অন্যায়-অত্যাচার, জুলুম ও নির্যাতনের কথা তুলে ধরছে সমাজের কাছে। খেটে খাওয়া মেহনতী মানুষের যৌক্তিক দাবীগুলো তুলে ধরছে রাষ্ট্রের কাছে।

আজ থেকে একযুগ আগেও আমরা যতটা পিছিয়ে ছিলাম। ইসাফের ঐকান্তিক চেষ্টায় আমরা আজ অতটা পিছিয়ে নেই। শায়খ আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন হিম্মতের নাম ইসমে আজম। যারা হিম্মত করে অটল থাকে তারাই সফল হয়। সফলতা কেবল তাদেরই পদচুম্বন করে।

পরিশেষে, ইনসাফের সার্বিক উন্নতি ও অগ্রগতি কামনা করছি। আল্লাহ তায়ালা ইনসাফকে তাঁর লক্ষ্যে পৌঁছার তৌফিক দান করুক। আমিন।

Previous post সফলতা ও বিশ্বস্ততার স্বাক্ষর রেখে ইনসাফের অর্ধযুগ পূর্তি!
Next post ইনসাফ দেশ ও জাতির অগ্রগতিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে