তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমানের চোখের চিকিৎসার জন্য সরকারি খরচে বিদেশে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘সিদ্দিকুরকে সর্বোচ্চ চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সরকারি খরচে বিদেশে পাঠানো হবে। ’

মন্ত্রী আজ (সোমবার) দুপুরে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন সিদ্দিকুরকে দেখতে গিয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের একথা জানান।
ওবায়দুল কাদের বেলা আড়াইটার দিকে সিদ্দিকুর রহমানকে দেখতে ওই হাসপাতালে যান।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সিদ্দিকুরের চিকিৎসার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং সিদ্দিকুরের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নিতে প্রধানমন্ত্রী তাঁকে পাঠিয়েছেন।

পুলিশের টিয়ার শেলের আঘাতে সিদ্দিকুরের চোখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কি না? এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা অভিযোগ। বিষয়টি তদন্তের জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে ওই প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

এ সময়ে জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের অধ্যাপক ডা. দীপক কুমার নাগ, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক চন্দ্র শেখর মন্ডল, প্রচার সম্পাদক সাইফ উদ্দিন বাবু, ক্রীড়া সম্পাদক চিন্ময় রায়, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শাকিল হোসাইন শুভ প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

গত বৃহস্পতিবার সাত সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা রুটিনসহ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার দাবিতে শাহবাগে আন্দোলন করতে গেলে দুই চোখে আঘাত পান সিদ্দিকুর। প্রথমে সিদ্দিকুরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর তাকে নেয়া হয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে। সেখানে শনিবার তার চোখে অস্ত্রোপচার করা হয়।