সিরিয়ায় আসাদ বাহিনীর ওপর তুরস্কের পাল্টা হামলা

ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০ । মুসলিম বিশ্ব ডেস্ক



সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে গণহত্যার খলনায়ক বাসার আল আসাদ বাহিনীর হামলায় পাঁচ সেনা নিহতের পর সেখানে পাল্টা হামলা চালিয়েছে তুরস্ক। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, একশোরও বেশি ‘শত্রু স্থাপনা’ নিরস্ত্রীকরণ করা হয়েছে। তবে এতে হতাহতের পরিমাণ সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

সম্প্রতি রুশ যুদ্ধ বিমানের সহায়তায় ইদলিবে বেসামরিক সুন্নি মুসলমানদের ফের গণহত্যার শুরু করছে সিরিয়ার স্বৈরশাসক বাসার আল আসাদ। এই হত্যাকাণ্ডের কারণে অঞ্চলটি ছেড়ে হাজার হাজার শরণার্থী তুরস্কসহ কয়েকটি সীমান্তবর্তী রাষ্ট্রে পালাচ্ছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

আসাদ বাহিনীর হামলায় ইদলিবে শান্তি প্রতিষ্ঠারত কয়েক জন সেনা হত্যার জবাবে পাল্টা হামলা চালায় আঙ্কারা। সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ওই অঞ্চলে আবারও তুর্কি বাহিনীর ওপর হামলা চালানো হলে পাঁচ সেনা নিহত হয়। আহত হয় আরও পাঁচজন।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের যোগাযোগ পরিচালক ফাহরেত্তিন আলতুন এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ইদলিবে একটি ঘৃণ্য হামলার ঘটনা ঘটেছে। সেকাণে আমাদের সেনাবাহিনী কাজ করছে, আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী আমাদের অধিকার রক্ষা করছে।

তিনি বলেন, ওই হামলার জবাবে তুরস্ক শত্রুর সব স্থাপনা ধ্বংস করেছে এবং সেনা সদস্যদের মৃত্যুর প্রতিশোধ নিয়েছে। আজকের ঘৃণ্য হামলার নির্দেশদাতা কেবলমাত্র তুরস্ককে নয় পুরো আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে।

এদিকে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেছেন, কাপুরুষদের জবাব দিয়েছে আঙ্কারা। আমাদের মহান সেনাবাহিনী প্রয়োজনীয় সবকিছু করা অব্যাহত রাখবে।