সিলেটে শহীদ মিনার ব্যবহারে ধর্মভিত্তিক সংগঠনের ওপর নিষেধাজ্ঞা অসাংবিধানিক: ইশা ছাত্র আন্দোলন

ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০ । ডেস্ক রিপোর্ট



ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন সিলেট মহানগর সভাপতি ইসমাইল আহমদ ও জেলা সভাপতি নূর উদ্দিন আহমাদ বলেছেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে সিলেট সিটি কর্পোরেশন মিলনায়তনে এক সভায় ধর্মভিত্তিক সংগঠনগুলোকে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ব্যবহার করতে পারবেনা মর্মে একটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে; যা বাংলাদেশের সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক একটি অপরিণামদর্শী, এখতিয়ার বহির্ভূত, অযৌক্তিক ও প্রতিক্রিয়াশীল সিদ্ধান্ত।

রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) এক যৌথ বিবৃতিতে তারা এ প্রতিক্রিয়া জানান।

কথিত বৈঠকে মোট ৮টি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। তন্মধ্যে একটি হলো, “ধর্মভিত্তিক সংগঠনকে শহীদমিনার ব্যবহার করতে না দেয়া”

সভাপতিদ্বয় বলেন, প্রগতিশীল রাজনৈতিক কার্যক্রম নির্বিঘ্নে করার অনুমোদন থাকলেও ইসলামভিত্তিক সাংগঠনের কার্যক্রম কেন চলবে না তা আমরা জানতে চাই। যদি নাট্যমঞ্চের নাচ-গান, রাজনৈতিক দলের সভা-সমাবেশ করার অনুমতি থাকে; তবে ইসলামী সংগঠনের সভা-সমাবেশের অনুমতি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত অনধিকার চর্চা ও চরম অন্যায়।

নেতৃদ্বয় আরও বলেন, “ধর্মভিত্তিক সংগঠন” এই পরিভাষার কোন সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা নেই। এই পরিভাষা ব্যবহার করে একটি মহল সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ব্যবহারে মুলত ইসলামভিত্তিক সংগঠনের কার্যক্রমকেই নিষিদ্ধ করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। যদি ‘ধর্মভিত্তিক’ এর পরিভাষা ব্যবহার করে ইসলামভিত্তিক সংগঠন এর কার্যক্রম নিষিদ্ধের দাবী তোলা হয়, তবে শাহ জালাল রাহ. এর উত্তরসূরী পুণ্যভূমি সিলেটের ধর্মপ্রাণ ও সর্বসাধারণ এই অপরিণত সিদ্ধান্তকে কখনোই মেনে নেবে না।