সীমান্তে হত্যার একদিন পর লাশ ফেরত দিল বিএসএফ

ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০ নিজস্ব প্রতিনিধি


কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে নিহত বাংলাদেশি কৃষক সোলেমান মোল্লা (৫০) মারা যাওয়ার একদিন পর তার লাশ ফেরত দেওয়া হয়েছে। সোলেমান মোল্লা গুলিবিদ্ধ হয়ে ভারতের বহরমপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৩ টার দিকে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ৮৪/২ (এস) পিলার সংলগ্ন ডিগ্রীরচর নামক স্থানে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে সোলেমান মোল্লার লাশ হস্তান্তর করে বিএসএফ।

লাশ হস্তান্তরের সময় বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন চিলমারী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার গোলাম কাওসার। ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার চরভদ্রা ক্যাম্পের এসি বলবীর সিং বিএসএফ’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন।

উল্লেখ্য, গত ৪ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০ টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার রামকৃঞ্চপুর ইউনিয়নের মরারচর গ্রামের সলেমান মোল্লা, ছলিমের চর গ্রামের গাজিউর, রুবেল ও সাহাবুল নামে ৪ কৃষক ভারত সীমান্তের ১৫৭/২ (এস) পিলার সংলগ্ন জিরো পয়েন্টে নিজেদের আবাদ করা সরিষা কাটতে যায়। এ সময় ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গি থানার মুরাদপুর বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে কৃষক সলেমান মোল্লা (৫০) গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। এরপর বিএসএফ সদস্যরা সলেমানকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাদের ক্যাম্পে নিয়ে যায়। এরপর বিএসএফ এর তত্বাবধায়নে বহরমপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার বিকালে তার মৃত্যু হয়।