স্বাস্থ্যখাতে অব্যবস্থাপনায় চিকিৎসকের মৃত্যুতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবী: ইশা ছাত্র আন্দোলন

দেশে স্বাস্থ্যখাতে চরম অবহেলা, অদক্ষতা ও অব্যবস্থাপনার কারণে চিকিৎসকের মৃত্যুতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবী করেছেন চরমোনাই পীরের সংগঠন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি এম. হাছিবুল ইসলাম এবং সেক্রেটারি জেনারেল নূরুল করীম আকরাম।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) নেতৃদ্বয় এক যৌথ বিবৃতিতে এ দাবী জানান।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত ডা.মঈন উদ্দিন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজে কর্মরত মেডিসিন বিভাগের সহকারি অধ্যাপক ডাঃ মঈন উদ্দীনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। হাদীসের ভাষ্য অনুযায়ী তাকে একজন শহীদ হিসেবেও আখ্যায়িত করেছেন তাঁরা।

নেতৃদ্বয় বলেন, এই মৃত্যু আমাদেরকে স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিতদের নিরাপত্তায় সরকারী ব্যবস্থাপনার ত্রুটিকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। মরহুম এই চিকিৎসকের সিলেটে আইসিইউ ও ঢাকায় আনার সময় এয়ার এম্বুলেন্স সুবিধা না পাওয়ায় তার স্বজন ও সহকর্মীদের মতোই সর্বস্তরের জনগণকেও বিস্মিত করেছে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, করোনা সংকটে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাধারণ মানুষের সেবায় প্রাণপণ চেষ্টা করা চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা যথোপযুক্ত নিরাপত্তা সামগ্রী পাচ্ছেন না। যা চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিতদের প্রতি চরম অবহেলা ও অব্যবস্থাপনার নামান্তর।‌ ইতোমধ্যে উন্নয়ন নামক ফাঁকা বুলির আড়ালে ফুটে উঠেছে তলাবিহীন স্বাস্থ্য খাতের প্রকৃত চিত্র। উপরন্তু যথাসময়ে হাসপাতালগুলোতে পিপিই পৌঁছানোর ব্যবস্থা না করে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের প্রদর্শনীকে অবিবেচনাপ্রসূত হিসেবে দাবি করেন তাঁরা।

এসময় দেশের এই সংকটাপন্ন মুহূর্তেও স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানান নেতৃদ্বয়। সাথে সাথে ডা. মঈন উদ্দিন এর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।