ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আনোয়ার ইবরাহীম


বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীর আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী বলেছেন, হেজবুত তাওহীদ নামক একটি সংগঠন আল্লাহ, নবী-রাসূল ও ইসলাম সম্পর্কে বানোয়াট মনগড়া কথাবার্তা বলে ও লিখে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। তারা এদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানকে ‘অমুসলিম’ বলে কটাক্ষ করছে। তাদের ভাষ্য অনুযায়ী তারা ব্যতিত এদেশে সবাই নাকি অমুসলিম। তারা কুরআন-হাদীসের অপব্যখ্যা করে প্রতিদিন সাধারণ মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির গভীর পায়তারা করে যাচ্ছে। জিহাদের অপব্যখ্যা করে জঙ্গীবাদকে উস্কে দিচ্ছে। তাদেরকে এখন থেকেই আইনের আওতায় এনে নিষিদ্ধ করতে হবে।

আজ বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ইসলামী আক্বাীদা সংরক্ষণ পরিষদের উদ্যোগে হেজবুত তাওহীদকে নিষিদ্ধের দাবীতে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, পরিষদের সমন্বয়কারী মুফতি আব্দুল্লাহ ইয়াহইয়া, মুফতি আ ফ ম আকরাম হুসাইন, মাওলানা সাজেদুর রহমান ফয়েজী, মাওলানা ইউসুফ মাহমূদী, মাওলানা আতাউর রহমান আতিকী, মুফতি যুবায়ের গণি ও মুফতি আবুল হাসান কাসেমী প্রমূখ।

মাওলানা মুজীবুর রহমান হামিদী বলেন, হেজবুত তাওহীদ মূলত হেজবুশ শয়তান। তারা ইসলাম, মানবতা ও দেশের শত্রু। হেজবুত তাওহীদের নামে তারা ইসলাম ধর্মকে বিকৃত করে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি এবং ইসলামের দুশমনদের মনোরঞ্জন করে চলছে। তাদেরকে রুখে দাড়াতে হবে।

মুফতি আব্দুল্লাহ ইয়াহইয়া বলেন, ২০১৪/১৫ সালে যারা সরকারের কালো তালিকার আওতায় এসেছে। তারা আবার কিভাবে জনসম্¥ুখে প্রকাশ্যে তাদের উগ্র-সন্ত্রাসী কর্মকা- চালায়? অনতিবিলম্বে তাদের অপতৎপরতা বন্ধ করতে হবে।

মুফতি আ ফ ম আকরাম হুসাইন বলেন, হেজবুত তাওহীদ কোন ইসলামিক সংগঠন নয়। এদের মধ্যে তাওহীদের লেশমাত্রও নেই। মতিঝিলে যেমন ঝিল নেই তেমনি হেজবুত তাওহীদের মধ্যে তাওহীদ বলতে কিছুই নেই। তাদের পুরো মিশনই তাওহীদের বিপক্ষে।