১ কোটির বেশি মানুষকে ত্রাণ ও করোনায় মৃত সাড়ে চারশত লাশের দাফন করেছে ইসলামী আন্দোলন

কোভিড-১৯ সৃষ্ট বৈশ্বিক বিপর্যয়ে বাংলাদেশের মানুষ যখন কর্মচ্যুত হয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছিল, তখন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নিয়মতান্ত্রিক সকল কার্যক্রম স্থগিত করে মানুষের সেবায় নিয়োজিত হয়েছে।

গেল বছরের শেষের দিকে যখন চীন থেকে সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সংবাদ পাওয়া যায়, তখনই ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী রেজাউল করীম দেশের মানুষের প্রতি অকৃত্রিম দায়বদ্ধতা থেকে তার দলের সকল সহযোগী সংগঠনের প্রতি করোনায় সৃষ্ট বিপর্যয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি,

সুরক্ষা উপকরণ বিতরণ ও সামর্থ্যহীন মানুষদের সার্বিক সহযোগিতায় বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করেন। তারই আলোকে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যন্ত সকল শাখায় ত্রাণ কমিটি, চিকিৎসা সহায়তা কমিটি, ফসল কাটা কমিটি, করোনায় মৃত ব্যক্তিদের লাশ দাফন কমিটি গঠনের মাধ্যমে গণমানুষের সেবায় আত্মোৎসর্গ করেছে দলের নেতাকর্মীরা।

চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যাণ বিভাগের রিপোর্টে দেখা গেছে, কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক এ পর্যন্ত এক কোটি ৩৬ হাজার দুইশত ত্রিশ জন মানুষের হাতে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছে দলের নেতাকর্মীরা।

এছাড়াও ২৫ হাজার মানুষকে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান, ৫ হাজার পরিবারের ফসল কেটে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীদের দাফন-কাফন করতে সারাদেশে ৫শত দাফন টীমের ১০ হাজার স্বেচ্ছাসেবক ৩০ জুন পর্যন্ত মোট চারশত পঞ্চাশ লাশ দাফন কাফন ও সৎকার করেছে।


সংগঠনটির আমীর মুফতী রেজাউল করীম বলেন, যারা মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের রাজী ও খুশির জন্য এই মহৎ সেবায় অংশ নিয়ে মানুষের দুর্দিনের সাথী হয়েছেন তাদের কাজের উত্তম প্রতিদান একমাত্র আল্লাহ রাব্বুল আলামীন দিবেন। আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি। যতদিন পর্যন্ত এই মহামারি শেষ না হবে ততদিন পর্যন্ত সামর্থ অনুযায়ী কর্মহীন অসহায় মানুষের সহযোগিতায় আমরা নিয়োজিত থাকবো, ইন শা আল্লাহ।

About |

Check Also

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর তথ্য গোপন করছে সরকার: রিজভী

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর তথ্য গোপন …