১ কোটি ৭০ লাখ পরিবারকে মাসে ৮ হাজার টাকা করে দেয়ার সুপারিশ

দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর প্রতি পরিবারকে প্রতি মাসে আট হাজার টাকা করে প্রণোদনা দেওয়ার সুপারিশ করেছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফল পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)।

সিপিডির সুপারিশ হলো, দেশের ১ কোটি ৭০ লাখ থেকে ১ কোটি ৯০ লাখ পরিবারকে দুই মাস এই টাকা দেওয়া যেতে পারে। তবে প্রণোদনার টাকা মাসভিত্তিক নয়, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সপ্তাহভিত্তিক পরিবারপ্রতি ২ হাজার টাকা করে দেওয়া উচিত।

আজ সোমবার সিপিডির ভার্চুয়াল মিডিয়া ব্রিফিংয়ে এই সুপারিশ করা হয়েছে। ‘সরকার গৃহীত পদক্ষেপসমূহের কার্যকারিতা এবং প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর খাদ্য ও আয় নিরাপত্তা’ শীর্ষ এই সংবাদ সম্মেলন হয়।

সিপিডি বলছে, এভাবে প্রণোদনা দিলে দেশের ছয় কোটি ৮৪ লাখ থেকে ৭ কোটি ৫৭ লাখ মানুষকে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় আনা যাবে।

সিপিডি হিসেব করে দেখেছে, এসব দিন আনে দিন খাই মানুষকে আর্থিক প্রণোদনা দিলে সব মিলিয়ে ২৬ হাজার ৯৬২ কোটি টাকা থেকে ২৯ হাজার ৮৫২ কোটি টাকা লাগবে।

সিপিডি মনে করে, আর্থিক প্রণোদনা দিলে শুধু দরিদ্র মানুষই উপকৃত হবে না, চাহিদা বেড়ে অর্থনীতিতে চাঙাভাব ফিরে আসবে।

এই বিষয়ে সিপিডির বিশেষ ফেলো মোস্তাফিজুর রহমান মনে করেন, সরাসরি আর্থিক সহায়তা দিলে মূল্যস্ফীতিতে খুব বেশি প্রভাব পড়বে না। কারণ এটি সাময়িক সময়ের জন্য প্রণোদনা দেওয়ার সুপারিশ করা হচ্ছে।

সিপিডি নির্বাহী পরিচালক ফাহমিদা খাতুন বলেন, দরিদ্রদের টাকা দেওয়া হলে শিল্প, ব্যবসা-বাণিজ্য, উৎপাদন খাতে চাঙাভাব ফিরে আসবে। যা অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে সহায়তা করবে। গরিব মানুষকে আগামী দুই-তিন মাস বাঁচিয়ে রাখার জন্য জরুরি ভিত্তিতে এই প্রণোদনা দেওয়া উচিত।

সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিপিডির গবেষক তৌফিকুল ইসলাম খান।