‘স্মার্টফোনসহ অন্যান্য চীনা পণ্য ও কাঁচামাল তৈরির ক্ষমতা ভারতের নেই’

চীনের সঙ্গে বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক দ্বন্দ্বে গেলে ভাল হবে না। ‌সংবাদমাধ্যমে ভারতকে কড়া বার্তা দিয়েই চলেছে চীন। সম্প্রতি পূর্ব লাদাখের গালোয়ানে ভারতীয় সেনার ওপর লাল ফৌজের আগ্রাসনের পরই চীনের বিরুদ্ধে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে ভারতের মোদি সরকার। অধিকাংশই অর্থনৈতিক পদক্ষেপ।

সেই ইস্যুতেই ‌চীনের ‘‌কমিউনিস্ট পার্টির ‌মুখপত্র’‌ সংবাদমাধ্যমে ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলা শুরু হয়েছে, চীনের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক পদক্ষেপ করলে ক্ষতি হবে ভারতেরই। সম্প্রতি গ্লোবাল টাইমস–এর একটি আর্টিকেলে মোদি সরকারের উদ্দেশ্যে লেখা হয়েছে, চীনের সঙ্গে অর্থনৈতিক দ্বন্দ্বে গেলে ফল ভাল হবে না।


পাশাপাশি এটাও লেখা হয়েছে, অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তে চীনা সংস্থাগুলির আর্থিক ক্ষতি অবশ্যই হবে তবে ভারতে এখনও সেই উচ্চতায় পৌঁছতে পারেনি যে চীনের অর্থনীতিকে ধ্বংস করবে। পাশাপাশি ভারতজুড়ে চীনা পণ্য বয়কটের দাবিকেও ‘‌হাস্যকর’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।


লা হয়, স্মার্টফোন, গাড়ির যন্ত্রাংশ সহ অন্যান্য চীনা পণ্য ও কাঁচামাল তৈরির ক্ষমতা ভারতের নেই। অন্য একটি আর্টিকেলে লেখা হচ্ছে, চীনা অ্যাপ বাতিল করে বাচ্চাদের মতো আচরণ করছে ভারত সরকার। ভারতে চীনা লগ্নির ক্ষেত্রের এটা অত্যন্ত খারাপ লক্ষণ।

সূত্রের উল্লেখ করে লেখা হয়, টিকটক অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তে বাইটড্যান্স কোম্পানির ৬০০ কোটি মার্কিন ডলার ক্ষতি হতে পারে। চীনের গ্লোবাল টেলিভিশন নেটওয়ার্কে লেখা হয়েছে, চীনা অ্যাপ বাতিলের সিদ্ধান্তে ভারতের উন্নতি থমকে যাবে। প্রমাণ করতে ভারতের স্বাক্ষরতা ও শিক্ষার হারের প্রসঙ্গও টেনে আনা হয়েছে। ‌

সূত্র: আজকাল