প্রধানমন্ত্রীর হঁশিয়ারি সত্ত্বেও থেমে নেই চাল চুরি, এবার স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাসহ আটক ৩

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মন্ত্রী-সচিবদের ক্রমাগত হঁশিয়ারির পরও থামার নাম নেই চাল চুরির কাহিনী। এবার চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে জেলার গৌরনদীতে প্রদীপ দত্ত (৪৫) নামে এক ডিলারসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। প্রদীপ দত্ত উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি। আটক বাকি দু’জন হলেন- চাল ক্রেতা মুদি দোকানদার পঙ্কজ সাহা ও চালবাহী ভ্যানচালক শঙ্কর পাল।

সোমবার (১৪ এপ্রিল) দিনগত মধ্যরাতে উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের বাকাই বাজার থেকে ৫৪ বস্তা চালসহ তাদের আটক করা হয়।

উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক অশোক কুমার বলেন, খাঞ্জাপুর ইউনিয়নে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় এক হাজার ৯০৫ জন সুবিধাভোগী রয়েছে। ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রির জন্য কর্মসূচির শুরুতেই ওই ইউনিয়নের ৯৫৩ জন সুবিধাভোগীর জন্য বাকাই বাজারের প্রদীপ দত্তকে ও ৯৫২ জন সুবিধাভোগীর জন্য ভূরঘাটা বাজারে ফরিদ বেপারীকে ডিলার নিয়োগ দেওয়া হয়।

গৌরনদী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কেএম আব্দুল হক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি ফোর্স নিয়ে সোমবার দিনগত মধ্যরাতে বাকাই বাজারে অভিযান চালান। এসময় পঙ্কজ সাহার মুদি দোকান থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৩০ কেজি ওজনের ৪০ বস্তা ও ৪০ কেজি ওজনের ১৪ বস্তাসহ সর্বমোট ৫৪ বস্তা চাল উদ্ধার করেন। এসময় চাল ক্রেতা মুদি দোকানদার পঙ্কজ সাহা, চালের ডিলার প্রদীপ দত্ত, ভ্যানচালক শঙ্কর পালকে আটক করা হয়।

গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইসরাত জাহান ঘটনার সত্যতা জানিয়ে বলেন, এ ব্যাপারে আটক ডিলার প্রদীপ দত্তকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গোলাম সরোয়ার জানান, এ ঘটনায় থানার এসআই মো. হেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে আটক ডিলার প্রদীপ কুমার দত্ত ও ব্যবসায়ী পংকজ সাহাকে আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এছাড়া আটক হওয়া ভ্যানচালক শংকর পালের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তাকে মামলার সাক্ষী করা হয়েছে। দায়ের হওয়া মামলায় আটক ডিলার ও ব্যবসায়ীকে মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।