ক্রসফায়ারের নামে বিচার বহির্ভূত হত্যা কোন সমাধান নয় : মাওলানা হাসানাত আমিনী

সাবেক সেনা কর্মকর্তা মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খানকে ‘ক্রসফায়ারের’ নামে বিচারবহির্ভূত হত্যার তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে হত্যার পরিকল্পনাকারী, নির্দেশদাতা, সংঘটনকারী ও ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ইসলামী ঐক্যজোটের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী।

আজ (১২ আগস্ট) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, সব নাগরিকের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের সাংবিধানিক দায়িত্ব। ক্রসফায়ারের নামে বিচার বহির্ভূতভাবে হত্যাকান্ড কোন সমাধান নয়। এই কলঙ্কের সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে বিচারকার্য পরিচালনা করতে হবে।

তিনি বলেন, বিনা বিচারে কাউকে হত্যা করার অধিকার ইসলামে নেই, প্রচলিত আইনও এটাকে সমর্থন করে না। সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদকে সন্দেহজনক মনে হলে আইনের আওতায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা যেতো। কিন্তু টেকনাফ থানা পুলিশ কোনো জিজ্ঞাসাবাদ, তদন্ত ও বিচার ছাড়াই মেজর সিনহাকে গুলি চালিয়ে হত্যা করে মানবাধিকার ও আইনের চরম লঙ্ঘন করেছে। দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে, এই হত্যাকান্ডই তার জ্বলন্ত প্রমাণ। আমি এ হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। একই সাথে হত্যার পরিকল্পনাকারী, নির্দেশদাতা, সংঘটনকারী ও ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আইনের উর্দ্ধে নয়। আইন মেনেই তাদেরকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। ইদানিং দেখা যাচ্ছে, আইনের অপব্যবহার করে এই বাহিনীর কতিপয় সদস্য মানুষের জান-মালের ক্ষতি করে নিজেদের আখের গোছাচ্ছে, তাদের ক্ষমতার রশি টেনে ধরতে হবে।