মালিবাগ মসজিদ রক্ষার আন্দোলনে শহীদদের খুনিদের শাস্তি দিতে হবে : চরমোনাই পীর

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম মালিবাগ শহিদী জামে মসজিদ রক্ষার আন্দোলনে শাহাদাতবরণকারী ৪ শহীদের খুনিদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

শনিবার (১৫ আগস্ট) এক বিবৃতিতে চরমোনাই পীর বলেন, ২০০২ সালের আজকের দিনে মালিবাগ বায়তুল আজিম জামে মসজিদ ভেঙ্গে মার্কেট নির্মাণ করতে চেয়েছিল বিএনপি নেতা ইঞ্জিনিয়ার তৌফিক। সেই মসিজদ রক্ষায় ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের ব্যানারে প্রতিবাদ মিছিলে পুলিশ ও আনসারের গুলিতে সেদিন ছাত্র আন্দোলনের কর্মী হাফেজ আবুল বাশার, রেজাউল করীম ঢালী, হাফেজ ইয়াহইয়া, পথচারী জয়নাল আবেদীন নির্মমভাবে শহিদ হন। ঘটনার ১৮ বছর অতিবাহিত হলেও খুনিরা এখনো ধরাছোয়ার বাইরে।

তিনি বলেন, খুনিদের গ্রেফতার, মসজিদ পূন:নির্মাণ সম্পন্ন, শহিদ পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপুরণ দেওয়ার ওয়াদা করলেও তা বাস্তবায়ন করেনি তারা। সেইসাথে এ ঘটনায় নি:শর্ত ক্ষমা প্রার্থণা করতে হবে তৎকালীন ক্ষমতাশীলদেরকে।

চরমোনাই পীর আরো বলেন,মসজিদ ভেঙ্গে মার্কেট বানানোর ইতিহাস পৃথিবীতে নেই। এমন কাজ করে তারা ইতিহাসে ঘৃণিত হয়ে থাকবেন।