জিয়াউর রহমান ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন: হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল-আলম হানিফ বলেছেন, জিয়াউর রহমান ১৯৭৫’র ১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। এর সব থেকে বড় প্রমাণ তিনি খুনিদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়েছেন এবং পুরস্কৃত করেছেন। জিয়াউর রহমান যদি এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত না থাকতেন, তাহলে খুনিরা পুরষ্কৃৃত হতো না, রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা পেত না।

জিয়াউর রহমান এই হত্যাকারীদের পুরষ্কৃৃত করে প্রমাণ করেছিলেন তাদের সঙ্গে তার সম্পৃক্ততা।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড এবং বঙ্গবন্ধুর সরকারকে উৎখাতের জন্য যারা ষড়যন্ত্র করেছে তাদেরকে জিয়াউর রহমান সব সময় উৎসাহ দিয়েছেন, মদদ দিয়েছেন। পঁচাত্তরের আত্মস্বীকৃত খুনিরা পরবর্তীতে নানা সময়ে সাক্ষাৎকারে বলেছেন, জিয়াউর রহমান তাদের সব সময় বলেছেন, তোমরা যদি কিছু করতে পারো করো, আমি আছি, তবে ব্যর্থ হলে আমার নামটা নিও না।

তিনি বলেন, এভাবে নেপথ্যে থেকে ষড়যন্ত্রকারীদের উৎসাহ দিয়েছেন এবং নিজেও ষড়যন্ত্র করেছেন জিয়াউর রহমান। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী ছিলেন না। এটা আজ দিবালোকের মত সত্য। জিয়াউর রহমান নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে দাবি করেন, কিন্তু ইতিহাসের কোথাও আমরা পাইনি- তিনি রণাঙ্গনে কোনও সাহসী ভূমিকা পালন করেছেন। জিয়াউর রহমান ছিলেন পাকিস্তানের একজন এজেন্ট। এটা তিনি তার কর্মকান্ডে প্রমাণ করেছেন।