সাংবাদিক ও রোগীদের ওপর হামলার দায়ে আনসার সদস্য প্রত্যাহার

রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালে রোগীর স্বজন ও সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় এক আনসার সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ঘটনা তদন্তে বাহিনীর পক্ষ থেকে গঠন করা হয়েছে তিন সদস্যের কমিটি।

আনসারের গণসংযোগ কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা উপ-পরিচালক (যোগাযোগ) মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন শনিবার জানান, ওই ঘটনায় আনসারের এক সদস্যকে মুগদা হাসপাতাল থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এছাড়া বাহিনীর পক্ষ থেকে গঠিত তদন্ত কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী এ ব্যাপারে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে এ ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী ফটোসাংবাদিক রুবেল রশীদ শনিবার হাসপাতালটির পরিচালক এবং আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালকের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

শুক্রবার সকালে করোনা পরীক্ষা করাতে মাকে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া এক যুবককে মারধর করেন আনসার সদস্যরা। এ ঘটনার ছবি তোলার সময় বাংলাদেশ প্রতিদিনের ফটোসাংবাদিক জয়ীতা রায়ের ওপর হামলা চালান অভিযুক্তরা। তাকে বাঁচাতে গেলে এক আনসার সদস্যের আঘাতে দেশ রূপান্তরের ফটোসাংবাদিক রুবেল রশীদের ক্যামেরা ভেঙে যায়।

মুগদা হাসপাতাল আনসার ক্যাম্পের সহকারী কমান্ডার রফিকুল ইসলাম জানান, হাসপাতালে কর্মরত তাদের চার আনসার সদস্যকে শনিবার বাহিনীর সদর দপ্তরে ডেকে নেওয়া হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আফসারুল আমিনকে প্রত্যাহার করা হয়।

মুগদা থানার ওসি প্রলয় কুমার সাহা জানান, এ ঘটনায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হয়েছে। সেটির সূত্র ধরে তদন্ত করছে পুলিশ।