তালেবানের সাথে অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করতে চায় আব্দুল্লাহ; ক্ষমতা ছাড়তে নাখোশ গণি

আফগানিস্তানে তালিবানের সঙ্গে শান্তি প্রক্রিয়ায় সংযুক্ত একজন শীর্ষ কর্মকর্তা গতকাল বলেছেন যে দু পক্ষ দীর্ঘ প্রতীক্ষিত শান্তি আলোচনা আবার যখন শুরু করবে, তখন তালেবানের সঙ্গে একটি অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের ব্যাপারে কথা-বার্তা আরম্ভ করবেন তিনি।

আফগানিস্তানের জাতীয় জোটএর প্রধান আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ বলেছেন যে, তালেবানের সাথে আমেরিকার এই প্রস্তাবিত সংলাপ একটি ব্যতিক্রমী সুযোগ সৃষ্টি করেছে এবং কয়েক দশকের এই বৈরীতা অবসানের জন্য উভয় পক্ষকে আপোষ করার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

আমেরিকার শান্তি ইনস্টিটিউট আয়োজিত একটি অনলাইন আলোচনায় আব্দুল্লাহকে যখন জিজ্ঞেষ করা হয় আফগান সরকার কি এই প্রস্তাব মেনে নেবে যে উভয় পক্ষের সমন্বয়ে একটি অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করা হোক, তখন তিনি বলেন, আসুন আমরা আলোচনার টেবিলে যাই, সেখানেই কথা বলি। আব্দুল্লাহ বলেন আমাদের চিন্তায় নমনীয় হতে হবে। তালিবানসহ সকল আফগানের জন্য একটি টেকসই, স্থায়ী এবং গ্রহণযোগ্য শান্তিতে পৌঁছুতে কোন কিছুই যেন আমাদের বিচ্যূত না করে।

তবে তার এই মন্তব্য আমেরিকার মদদপুষ্ট আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গণির সাম্প্রতিক একটি বিবৃতির বিপরীত। যেখানে তিনি তালিবানের সাথে আমেরিকার স্বাক্ষরিত শান্তিচুক্তির সব কিছু মেনে নিলেও একটি অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের লক্ষ্যে তার নিজের ক্ষমতা ত্যাগের সম্ভাবনা নাকচ করে দেন।

আব্দুল্লাহর বক্তব্য সম্পর্কে গণির দপ্তর থেকে কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি তবে আব্দুল্লাহ জোর দিয়েই বলেন যে তিনি এই শান্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নেয়ার ব্যাপারে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সলা-পরামর্শ করছেন। এরই মধ্যে আমেরিকা সমর্থিত আফগান সরকার ও তালিবান আলোচকরা কাতারের দোহায় মিলিত হতে রাজী হয়েছেন তাও সুনির্দিষ্ট তারিখ এখনো ঠিক করা হয়নি।

সূত্র: ভয়েস অফ আমেরিকা