অসহায়দের মাঝে ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের কোরবানীর গোশত বিতরণ

গতকাল শনিবার বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের উদ্যোগে পুরানা পল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কোরবানীর গোশত বিতরণ করা হয়েছে। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ গোশত বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দণি সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ, দক্ষিণ সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, সেক্রেটারী মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, আলহাজ্ব আব্দুল আউয়াল, মাওলানা নজরুল ইসলাম, মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, মাওলানা আমিনুল ইসলাম ইউনুছ তালুকদার, মাওলানা সাইফুল ইসলাম, শ্রমিকনেতা ওবায়দুল্লাহ বরকত, নকীব বিন হুসাইন।

গোশত বিতরণ কালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দণি সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ বলেন, বঞ্চিত অসহায়, অনাহারী ও ক্ষুধার্তদের মুখে খাবার তুলে দেয়া ইসলামের শিক্ষা। রাসূল সা. বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি পেটভরে আহার করল, অথচ তার আশপাশের লোকজন অনাহারে ও অর্ধাহারে রাত কাটালো, সে আমার দলভুক্ত নয়’। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দেশের দুর্যোগপূর্ণ সময় বিশেষ করে করোনা মহামারীর শুরু লগ্ন থেকে পীর সাহেব চরমোনাই’র নির্দেশে কর্মহীন, অসহায় ও বঞ্চিতদের পাশে থাকার চেষ্টা করছে। ভবিষ্যতেও করে যাবে ইনশাআল্লাহ। তিনি বলেন, ইসলাম শান্তি ও কল্যাণের ধর্ম, মানবতার ধর্ম। কল্যাণকামীতাই ইসলামের অন্যতম শিক্ষা।

এছাড়াও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের থানা শাখার নেতৃবৃন্দের নেতৃত্বে পৃথক পৃথকভাবে কোরবানী গোশত বিতরণ করা হয়। যেসকল থানায় কোরবানীর গোশত বিতরণ করা হয়েছে তা হলো : শাহবাগ, মতিঝিল, শাহজাহান, খিলগাঁও, কোতয়ালী, সূত্রাপুর, বংশাল, লালবাগ, চকবাজার, মুগদা, যাত্রাবাড়ী, শ্যামপুর, কদমতলী, কামরাঙ্গীরচর, হাজারীবাগ, নিউমার্কেট, ধানমিন্ড, সবুজবাগ, ওয়ারী, গেন্ডারিয়া, ডেমরা, কলাবাগান থানা।

এ সময় নেতৃবৃন্দ বলেন, ঈদের আনন্দে সর্বস্তরের মানুষকে সামিল করার নামই প্রকৃত খুশি। এটা ইসলামেরও অন্যতম শিক্ষা। কাজেই ঈদের আনন্দে সকল বঞ্চিতদেরকেও সামিল করে ইনসাফপূর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠা করাই ইসলামী আন্দোলনের একমাত্র লক্ষ্য।

About |

Check Also

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর তথ্য গোপন করছে সরকার: রিজভী

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর তথ্য গোপন …