‘ক্ষমতাশীল নেতারা মুখ চিনে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে, দল না করলে মিলছে না ত্রাণ’

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম । নিজস্ব প্রতিনিধি


এলাকায় যারা ক্ষমতাশীল নেতা আছেন তারা মুখ চিনে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে। আমারা যারা রিকশা ও অটো চালাই আজ পর্যন্ত কোনো ত্রাণ বা সরকারি সহযোগিতা পাই নাই। চেয়ারম্যান, মেম্বারসহ ক্ষমতাশীল অনেক নেতার কাছে গেছি। তারা আমাদের ধমক দিয়ে তাড়ায়ে দিছে। তারা বলেছেন, যারা মিটিং-মিছিল করে তাদেরকেই শুধু ত্রাণ দেবেন।
শনিবার (১৮ এপ্রিল) পর্যন্ত কোনো খাদ্য সহযোগিতা না পাওয়ায় কর্মহীন হয়ে পড়া রাজবাড়ী সদর উপজেলার পাঁচুরিয়া ইউনিয়নের হতদরিদ্ররা  এসব কথা বলেন।

তারা অভিযোগ করে বলেন, একজনের ৬০ বিঘা জমি আছে, সে মাথায় করে সরকারি ত্রাণ নিয়ে যায়। সে দলীয় লোক। আর আমরা রিকশা-ভ্যান, অটোচালক, চায়ের দোকানদার যারা আছি তারা আজ পর্যন্ত চারআনার কোনো ত্রাণ পাই নাই। তাহলে আমরা কি এদেশে ভাইসা আইছি নাকি? আমাদের এই করুণ অবস্থায় সরকার যদি পাশে না থাকে তাহলে আমরাতো করোনাভাইরাসের আগে না খেয়ে মারা যাবো।
ত্রাণ বঞ্চিতদের অভিযোগ, দলীয়করণের মাধ্যমে ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও স্বচ্ছল পরিবারগুলো ত্রাণ পাচ্ছে। কিন্তু অসহায় দরিদ্ররা পাচ্ছে না। এছাড়াও চেয়ারম্যান-মেম্বাররাও কোনো সহযোগিতা করছে না।
অসহায় এক বৃদ্ধা বলেন, আমরা খুব গরিব মানুষ, সবাই সবারি হগলতা দেয়। আমাগেরে দেয় না, মুখ বাইছে বাইছে হগলতা দেয়। এহন আমাগের বাড়ি বইসে না খায়াও দিন যায়তেছে। আমার স্বামী রিকশা চালায়, এহন রিকশাডা পর্যন্ত চালাবের পারতেছে না। মানুষ জন নাই, টাহা পয়সা কেবা করে অবি।