এবার ইউপি সদস্যের গুদামে পাওয়া গেছে লুকিয়ে রাখা ১৫৮ বস্তা সরকারি চাল

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম 


খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গার গোমতিতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ২৮ বস্তা সরকারি চাল জব্দ করার ১২ ঘণ্টা না পেরুতেই তাইন্দংয়ে ইউপি সদস্যের গুদামে মিলল ১৫৮ বস্তা সরকারি চাল।

রোববার (১২ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে উপজেলার তাইন্দং বাজারে অভিযান চালিয়ে এসব চাল জব্দ করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিভীষণ কান্তি দাশ।

জানা গেছে, তাইন্দং ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. জামাল উদ্দিনের মসজিদ মার্কেটের ভাড়া গুদামে সরকারি চাল মজুদ আছে বলে স্থানীয়রা প্রশাসনকে খবর দেন। খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালান মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিভীষণ কান্তি দাশ। অভিযানকালে ইউপি সদস্য মো. জামাল উদ্দিনের গুদাম থেকে খাদ্য অধিদফতরের ‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশ ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ’ লেখা ৩০ কেজি ওজনের ১৫৮ বস্তা চাল জব্দ করা হয়।

এ সময় তবলছড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী, উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা রুবাইয়াত তানিম ও তাইন্দং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর উপস্থিত ছিলেন।

তবলছড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী জানান, জব্দ করা ১৫৮ বস্তা চাল উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিভীষণ কান্তি দাশ বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে তাইন্দং বাজারে ইউপি সদস্য মো. জামাল উদ্দিনের গুদামে অভিযান চালাই। এ সময় তার গুদামে মজুদ করা ১৫৮ বস্তা চাল জব্দ করা হয়।

এ ঘটনায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, সরকারি চাল নিয়ে কোনো ধরনের চালবাজি সহ্য করা হবে না।